চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পর্দা উঠেছে মহামারিকালের ‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থে’র

পর্দা উঠেছে টোকিও অলিম্পিকের। শুক্রবার মহামারিকালের ‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থে’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হয়েছে অনেকটা দর্শকশূন্য গ্যালারিতে। জাপান আসরে বাংলাদেশের ৬ অ্যাথলেট অংশ নিচ্ছেন।

টোকিও অলিম্পিকে চোখ রাখতে বিশ্ববাসীকে আমন্ত্রণ জানানো হয় জমকালো আতশবাজির মাধ্যমে। জাপানের সম্রাট নারুহিতো অলিম্পিকের উদ্বোধন করেন।

অ্যাথলেট, কোচ, কর্মকর্তা, আয়োজক কমিটি ও গুরুত্বপূর্ণ বাছাই হাজারখানেক দর্শক অবশ্য উপস্থিত ছিলেন গ্যালারিতে। স্বাগত অনুষ্ঠানে একটি ভিডিও প্রদর্শন করা হয়েছে। যাতে দেখানো হয় মহামারিকালে অ্যাথলেটরা কীভাবে অলিম্পিকের জন্য প্রস্তুত হয়েছেন ঘরবন্দি থেকে।

বিজ্ঞাপন

অ্যাথলেটরা অলিম্পিক মার্চে মাস্ক পরে অংশ নিয়েছেন। সব মিলিয়ে ২০৭টি দেশ এবারের আসরে অংশ নিচ্ছে। মার্চ পাস্টে সবার আগে ছিল অলিম্পিক গেমসের প্রথম আয়োজক গ্রিস। পরে অলিম্পিকের রিফিউজি দল। শেষে স্বাগতিক জাপান।

মার্চ পাস্টে বাংলাদেশের গর্বের লাল-সবুজ পতাকা বহন করেছেন সাঁতারু আরিফুল ইসলাম। তার সঙ্গে বাকি পাঁচ অ্যাথলেট ছিলেন সাঁতারু জুনাইনা আহমেদ, আর্চার রোমান সানা ও দিয়া সিদ্দিকী, স্প্রিন্টার জহির রায়হান, শুটার আব্দুল্লাহ হেল বাকি।

করোনাভাইরাসের কারণে একবছর পিছিয়ে মাঠে গড়াল আয়োজন। জাপানে সংক্রমণ বাড়তে থাকায় টোকিও আসর নিয়ে শেষমুহূর্ত পর্যন্ত গুঞ্জন-সমালোচনা-প্রশ্ন ছিল। সবকিছুকে পাশ কাটিয়ে উদ্বোধন হয়েই গেল ‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থে’র।

বিজ্ঞাপন