চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পরীমনির হাতে থাকা সিনেমাগুলোর কী হবে?

বিতর্কিত কর্মকান্ডের অভিযোগে চিত্রনায়িকা পরীমনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে গ্রেপ্তার হয়েছেন গেল সপ্তাহে। একাধিক মামলায় আদালত তাকে চারদিনের রিমান্ডে দিয়েছেন। খতিয়ে দেখা হচ্ছে, পরীমনির বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগগুলো। সত্যতা মিললে, এই নায়িকার দীর্ঘমেয়াদে জেল হতে পারে। এ কারণে, পরীমনিকে নিয়ে যারা সিনেমা বানাচ্ছিলেন তারা অনিশ্চয়তায় পড়েছেন!

গ্রেপ্তার হওয়ার আগ পর্যন্ত পরীমনির হাতে ছিল বেশ কিছু সিনেমা। যেখানে বিনিয়োগ রয়েছে কয়েক কোটি টাকা। প্রশ্ন উঠেছে, পরীমনির হাতে থাকা সিনেমাগুলোর কী হবে? খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সরকারী অনুদান প্রাপ্ত তিনটি সিনেমা ছিল পরীমনির হাতে। ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’, ‘মুখোশ’, ‘প্রীতিলতা’। প্রথম দুটি ছবির পরিচালক জানান, শুটিং পুরোপুরি শেষ হয়েছে।

প্রীতিলতা রূপে পরীমনি

তবে ‘প্রীতিলতা’র শুটিং চলমান। মাত্র ৩৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে বলে জানান পরিচালক রশিদ পলাশ। পরীমনিকে নিয়ে ‘বায়োপিক’ নামে নতুন সিনেমার শুটিং হওয়ার কথা ছিল অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে। সঞ্জয় সমদ্দারের পরিচালনায় সিয়ামের বিপরীতে এ সিনেমায় পরীমনি এখন থাকবেন কিনা, তা  নিয়ে দেখা দিয়েছে যথেষ্ঠ সংশয়!

পরীমনি কাণ্ডে তোপের মুখে পড়া পরিচালক চয়নিকা চৌধুরীর পরিচালনায় ওয়েব ফিল্ম ‘অন্তরালে’ করার কথা ছিল পরীমনির। জুনে এ কাজটির জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘স্বপ্নজাল’ খ্যাত পরীমনি। পরিচালক চয়নিকা জানিয়েছিলেন, করোনা পরিস্থিতি অনুকূলে এলেই তিনি শুটিংয়ে নামবেন। তবে সার্বিক পরিস্থিতি বলছে, কাজটি পুরোপুরি অনিশ্চয়তায় মধ্যে আছে!

পরীমনির এসব সিনেমার সংশ্লিষ্ট পরিচালকদের সঙ্গে আলাপ হয় চ্যানেল আই অনলাইনের। কেউই ভবিষ্যতে কী হবে কিছুই জানাতে পারলেন না। জনপ্রিয় লেখক ও অধ্যাপক মুহাম্মদ জাফর ইকবালের ‘রাতুলের রাত রাতুলের দিন’ অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’। সরকারী অনুদানের পাশাপাশি বঙ্গ বিডি সিনেমাটির একাংশে লগ্নী করেছে।

অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন এর টিম

গেল বছরই সিনেমাটির শুটিং শেষ হয়েছে বলে জানান পরিচালক আবু রায়হান জুয়েল। তিনি বলেন, পরীমনিসহ পুরো সিনেমার শুটিং, ডাবিং শেষ। কালার ও মিউজিক সংযোজন বাকি। এগুলো ছাড়াই অনুদান কমিটিকে সিনেমাটি দেখিয়েছি। চূড়ান্ত এডিটের পর হয়তো পরীমনির কিছু ডাবিং পরিবর্তন হতে পারে। তার প্রয়োজন পড়বে বলে মনে হচ্ছে না এবং তার জন্য সিনেমা আটকে থাকবে না।

বিজ্ঞাপন

পরিচালক আবু রায়হান জুয়েল বলেন, সরকার যেভাবে গণটিকা দিচ্ছে, করোনা নিয়ন্ত্রণে এলে আগামী অক্টোবর নাগাদ মুক্তি দিতে চাই। সিনেমাটির বেশিরভাগ টার্গেট দর্শক শিশুরা। তাদের দেখাতে না পারলে আপসোস থেকে যাবে, শ্রম বৃথা যাবে।

ইফতেখার শুভর পরিচালনায় মোশাররফ করিম ও রোশানের সঙ্গে ‘মুখোশ’ সিনেমাটি মার্চে শেষ করেছেন পরীমনি। পরিচালক জানালেন, শুটিং শেষ হলেও কারও ডাবিং হয়নি। পরীমনির একটি রোম্যান্টিক গান বাকি। লকডাউনের কারণে সম্ভব হয়নি। গানটির শুটিং না করলেও সিনেমায় কোনো প্রভাব পড়বে না। আরও দুটো গান আগেই শুটিং করা।

মুখোশ সিনেমার শুটিং

ইফতেখার শুভ বলেন, ডিসেম্বরে ‘মুখোশ’ মুক্তি দিতে চাই। তার আগে ডাবিংসহ অন্যান্য কাজ শেষ করতে হবে। মাস দুয়েক পরীমনির জন্য অপেক্ষা করবো। যদি তাকে না পাই বিকল্পভাবে তার অংশের ডাবিং করতে হবে। এছাড়া আর উপায় নেই।

গোলাম রাব্বানী চিত্রনাট্য ও সংলাপে নির্মিতব্য ‘প্রীতিলতা’র পরিচালক রশিদ পলাশ বলেন, আগেই ৩৫ শতাংশ শুটিং করা। বাকি শুটিং ১৭ আগস্ট থেকে করতে চেয়েছিলাম। পরীমনি শিডিউলও দিয়েছিলেন। সব প্রস্তুতি সম্পন্ন ছিল। হঠাৎ তার এমন ঘটনা ঘটবে কে জানতো! পুরো টিম বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছি। এই অবস্থায় এখন শেষ করতে পারবো কিনা, আমরা চিন্তিত। পরীমনির সিনেমাটির লিড কাস্টিং। তাকে ছাড়া কোনো ভাবেই এ কাজ শেষ করা সম্ভব নয়। তার জন্য অপেক্ষা করা ছাড়া অপশন নেই।

বায়োপিকে চুক্তিবদ্ধ সিয়াম-পরী, সঙ্গে পরিচালক

এদিকে, অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে শুটিং শুরুর কথা ছিল পরীমনির চুক্তিবদ্ধ ‘বায়োপিক’ সিনেমার। পরিচালক সঞ্জয় সমদ্দার জানান, সিনেমাটির জন্য তিনি দীর্ঘদিন চিত্রনাট্য ও মিউজিকের কাজ করছেন। হঠাৎ পরীমনির এমন ঘটনা কাজে কিছুটা ব্যাঘাত ঘটিয়েছে। সঞ্জয় সমদ্দারের কথা, সপ্তাহ খানেকের মধ্যে আরটিভির কর্মকর্তারা বায়োপিক’র ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন।

আরটিভির জনসংযোগ কর্মকর্তা সুজন আহমেদ বলেন, পরিচালককে সঙ্গে নিয়ে আরটিভি সিইও ও অনুষ্ঠান প্রধান প্রত্যেকে একত্রে বসে সিদ্ধান্ত জানাবেন। আদালতে পরীমনির বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করেই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। পরীমনির সঙ্গে চুক্তি আছে ও সম্মানি দেয়া, তাই এখন পুরোটাই নির্ভর করছে আদালতে চলমান মামলার উপর। এছাড়া আমাদের আর কিছুই করার নেই।

বিজ্ঞাপন