চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পরীক্ষায় উতরে গেলেন রাহি

বিশ্বকাপ দলে চমক হয়ে আসা আবু জায়েদ রাহি ত্রিদেশীয় সিরিজে সুযোগ কাজে লাগালেন দারুণভাবে। দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলতে নেমেই তুলে নিয়েছেন ৫ উইকেট। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নিয়মরক্ষার ম্যাচে উড়ন্ত পারফরম্যান্সই হয়ত তার জন্য হতে যাচ্ছে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে টিকে থাকার নিশ্চয়তা।

রাহির বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্নে অনিশ্চয়তার মেঘ জমেছিল টিম ম্যানেজমেন্টের ভাবনা বদলে। পেস আক্রমণে বৈচিত্র্য আনতে তাসকিন আহমেদকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রাখার চাহিদাপত্র দিয়ে রেখেছিলেন বাংলাদেশ দলের হেড কোচ স্টিভ রোডস। তাসকিন ঢুকলে অবধারিতভাবেই বাদ পড়তে হতো রাহিকে।

বিজ্ঞাপন

২৩মে পর্যন্ত বিশ্বকাপ দলে পরিবর্তনের সুযোগ থাকায় আলোচনায় আসেন তাসকিন। প্রস্তুতি ম্যাচে এ পেসার তিন উইকেট নিলে সম্ভাবনা আরও বাড়ে। তবে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন কদিন আগে সাফ জানিয়ে দেন কাউকে না দেখে (বোলিং) বাদ দেয়া সমীচীন হবে না।

বিজ্ঞাপন

তার মন্তব্যের পরই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সোমবারের ম্যাচে ওয়ানডে অভিষেক হয় রাহির। ম্যালাহাইডে এ পেসার ৯ ওভারে ৫৬ রান দিয়ে পাননি কোনো উইকেট। পরের ম্যাচেও তাকে সুযোগ দেয়া হয় আরেকবার পরখ করতে।

অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা হাতে তুলে দেন নতুন বল। শুরুতে নেন একটি উইকেট। বল পুরনো হতেই দেখান আসল ঝলক। দুই দিকেই সুইং করাতে সক্ষম আবু জায়েদ পরের চার উইকেট শিকার করেন মাত্র ১৩ বলের ব্যবধানে।

দ্বিতীয় উইকেটের দেখা পান ইনিংসের ৪৫তম ওভারে। আইরিশ অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড (৯৪) রানে যখন সেঞ্চুরির অপেক্ষায়, তাকে লিটন দাসের ক্যাচ বানান সিলেটের এ পেসার। পরের ওভারে হানেন জোড়া আঘাত। সাজঘরে ফেরান কেভিন ও’ব্রায়েন (৩) ও সেঞ্চুরি ছাড়ানো পল স্ট্রার্লিংকে (১৩০)।

নিজের নবম ও ইনিংসের ৪৯তম ওভারের চতুর্থ বলে গ্যারি উইলসনকে আউট করে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ম্যাচেই গড়ে ফেলেন পাঁচ উইকেটের কীর্তি। পথে ২৫ বছর বয়সী এ ডানহাতি পেসার খরচ করেন ৫৮ রান।