চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পরিচ্ছন্ন কাটুক ঈদ

কোরবানির পরে ঘর এবং কোরবানি দেয়ার স্থান পরিষ্কার রাখার কিছু টিপস:

গৃহিণীরা ঈদের দিন কী খাবার তৈরি করবেন তা নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। পাশাপাশি থাকে কোরবানির মাংস গুছিয়ে রাখার পরে ঘর পরিষ্কার করার ব্যস্ততা। জেনে নিন কোরবানির পরে ঘর এবং কোরবানি দেয়ার স্থান পরিষ্কার রাখার কিছু টিপস।

কোরবানির ঈদে রাস্তাঘাটে আবর্জনা জমে থাকতে দেখা যায়। পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে নিজেদেরও সচেতন থাকতে হবে এবং প্রতিবেশীদেরও সচেতন করতে হবে। কোরবানির আবর্জনা এখানে-সেখানে ফেলে না রেখে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলুন অথবা বর্জ্য রাখার ব্যাগে ভরে ময়লা সংগ্রহকারীদের দিয়ে দিন। ময়লা ফেলে রাখলে দুর্গন্ধ ছড়ায়, পরিবেশ দূষিত করে এবং জীবাণু ছড়ায়। রক্ত গড়িয়ে যেন রাস্তায় না যায়, সেদিকে খেয়াল রাখুন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মাংস কাটাকাটি, ভাগ করা এবং বিলি করার সময় শরীরে, পোশাকে এবং স্যান্ডেলে রক্ত লাগতে পারে। ঘরে ঢোকার আগেই স্যান্ডেল বাইরে খুলবেন। কাজ শেষ করে যত দ্রুত সম্ভব হালকা গরম পানি এবং সাবান দিয়ে ত্বক ভালভাবে পরিষ্কার করে ফেলুন। এরপর ভালোভাবে শ্যাম্পু-সাবান দিয়ে গোসল করে নিন। যে কাপড় পরে ছিলেন, সেটাও ধুয়ে ফেলুন।

কোরবানির সময় রান্নাঘরে কাঁচা মাংসের স্তূপ জমে যায়। মেঝেতে রক্ত লেগে যায়। চেষ্টা করুন প্লাস্টিকের শিট বিছিয়ে কাজটা করার। ঘরে ছোট শিশু থাকতে তারা যেন এগুলোর সংস্পর্শে না আসে সেদিকে খেয়াল রাখুন।

মাংস গুছিয়ে ফেলার পরে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ঘর পরিষ্কার করে ফেলুন। কোনো ময়লা রান্নাঘরে জমতে দেয়া উচিত হবে না। মেঝে পরিষ্কার করতে কুসুম গরম পানি এবং জীবাণুনাশক ব্যবহার করুন।

Bellow Post-Green View