চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পরবর্তী প্রজন্মের কাছে মাইলফলক হবে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক

মুম্বাইয়ে পুরোদমে চলছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী নিয়ে নির্মিতব্য বাংলাদেশ-ভারতের যৌথপ্রযোজনার ছবি ‘বঙ্গবন্ধু’। প্রখ্যাত নির্মাতা শ্যাম বেনেগালের পরিচালনায় ছবিটি বিগত দুই বছর ধরেই বাংলাদেশ-ভারতে সমান ভাবে আলোচিত।

ছবির প্রায় সব গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র, নাটক ও থিয়েটারের গুণী অভিনেতারা। এরইমধ্যে নির্বাচিত অভিনেতারা সিডিউল মেনে কয়েক দফায় মুম্বাই গিয়ে শুটিং করে এসছেন। তাদেরই একজন বাংলা নাটক-সিনেমার তুখোড় অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু।

বিজ্ঞাপন

তিনি ‘বঙ্গবন্ধু’তে অভিনয় করছেন খন্দকার মোশতাক এর চরিত্রে। এরইমধ্যে দুইবার মুম্বাই গিয়ে শুটিং করে এসেছেন অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু। ফেব্রুয়ারির ৫ তারিখ গিয়েছিলেন প্রথমবার। এরপর ২৫ ফেব্রুয়ারি গিয়ে সর্বশেষ ফিরেছেন মার্চের ৯ তারিখে। আবারও এই মাসের শেষে মুম্বাই যেতে হবে তাকে। এমনটাই জানালেন চ্যানেল আই অনলাইনকে।

মুম্বাইয়ে গিয়ে ‘বঙ্গবন্ধু’ চলচ্চিত্রে নিজের শুটিং অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে বাবু বলেন, অনেক দারুণ কাজ হচ্ছে। খুবই প্রফেশনালভাবে কাজ হচ্ছে। আমাদের বাংলাদেশ থেকে যেসব শিল্পী কলাকুশলীরা এই চলচ্চিত্রটিতে আছেন, তাদেরকে দেখেছি আন্তরিকতা নিয়ে কাজটি করতে। এই আন্তরিকতাই বলে দেয়, চলচ্চিত্রটি নিয়ে কতোটা সিরিয়াস সবাই।

বঙ্গবন্ধু চলচ্চিত্র কিংবা নিজের চরিত্র নিয়ে আগাম কিছু বলার সুযোগ নেই জানিয়ে বাবু বলেন, চলচ্চিত্রটি নিয়ে আগাম কিছু বলা আপাতত প্রোডাকশন থেকে পুরোপুরি নিষেধ। তবে এটুকু বলতে পারি, চলচ্চিত্রটি পরবর্তী প্রজন্মের কাছে একটি মাইলফলক হবে।

তিনি বলেন, মুম্বাইয়ে শুটিং অভিজ্ঞতা থেকে মনে হয়েছে, আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে। দেখেছি, কার কী দায়িত্ব, তিনি সেটা নিজ থেকেই দায়িত্ব নিয়ে পালন করছেন।

ডকুমেন্টারি, ডকুফিকশন নির্মাণেই সিদ্ধহস্ত ভারতের প্রখ্যাত নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল। এরআগে মহাত্মা গান্ধী, জহুরলাল নেহেরু, সত্যজিৎ রায়ের মতো মানুষদের নিয়ে তথ্যচিত্র নির্মাণ করেছেন তিনি। সুভাষ চন্দ্র বসুকে নিয়ে নির্মাণ করেছেন জীবনী নির্ভর ফিচার ফিল্ম ‘বোস: দ্য ফরগটেন হিরো’।