চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পদ্মা সেতুকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠছে ওষুধ শিল্পকারখানা

দেশের সম্ভাবনাময় ঔষধ শিল্পের কারখানা গড়ে উঠছে দক্ষিণাঞ্চলজুড়ে। পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজকে মাথায় রেখে গোপালগঞ্জসহ পদ্মাপাড়ের বেশ কয়েকটি জেলায় চলছে এসব ঔষধ কারখানার নির্মাণ কাজ। বাংলাদেশের ওষুধ শিল্পের বয়স প্রায় ছয় দশক। এই সময়ে বিশ্বমানের প্রযুক্তি আর মোটা বিনিয়োগ নিশ্চিত করেছে চাহিদা মাফিক উৎপাদন ও গুণগত মান।

সরকারী হিসেবে, দেশে ঔষধ শিল্পের আকার এখন প্রায় দুই বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০১২ সালে ৪৬৬ কোটি ও ২০১৩ সালে ৫০৬ কোটি টাকার ওষুধ রপ্তানি করেছে বাংলাদেশ। প্রায় ৯০টি দেশে বাংলাদেশের ওষুধ রপ্তানি হয়। সম্ভাবনাময় এ খাত বিস্তৃত হচ্ছে দেশজুড়ে। পদ্মাসেতুর হতে চলায় দক্ষিণাঞ্চলে গড়ে উঠছে বেশ কয়েকটি ঔষধ কারখানা। গোপালগঞ্জের ঘোনাপাড়ায় প্রায় ১০ একর জমির ওপর গড়ে উঠছে এসেনশিয়াল ড্রাগস কোম্পানী লিমিটেডের এ কারখানাটি।

Advertisement

এটি চালু হলে জরুরী ও জীবন রক্ষাকারী ঔষধ, পরিবার-পরিকল্পনা কার্যক্রমে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় ঔষধ, ইনজেকশন উৎপাদন হবে। দেশী চাহিদা মিটিয়ে রপ্তানীর মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রাও উপার্জন হবে।

কারখানাটি চালু হলে আশপাশের কয়েক হাজার মানুষের কর্মসংস্থানও তৈরি হবে। ২০১৭ সালের মাঝামাঝিতে প্রকল্পের কাজ শেষ করার ব্যাপারে আশাবাদী প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা। এছাড়াও মাদারীপুর ও ফরিদপুরেও আরও কিছু ঔষধ কোম্পানী কারখানা নির্মাণ করতে জায়গা কিনেছে।