চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পতিত জমিতে তরমুজ চাষে সাফল্য

নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার পতিত জমিতে তরমুজ চাষ করে চরাঞ্চলের কৃষকরা লাভের মুখ দেখেছেন । লবণাক্ততা ও উষ্ণতার কারণে বছরের পর বছর পড়ে থাকা জমিতে তরমুজের ভালো ফলন আশার আলো জাগিয়েছে কৃষকের মনে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, উপজেলার সুবর্ণচরের চারজন কৃষক পতিত জমিতে পরীক্ষামূলকভাবে এবার তরমুজ চাষ করেছিলেন। একর প্রতি ৪০ হাজার টাকা চাষাবাদ খরচ বাদ দিলে উৎপাদিত তরমুজ বিক্রি করে আয় হয়েছে দু’লাখ ৪০ হাজার টাকা।

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের সহায়তায় ছয় একর পতিত জমিতে তরমুজের করা চাষ হয় । চরাঞ্চল হওয়ায় মাঠসংলগ্ন পুকুরের তলদেশ খুড়ে পানি তুলে ক্ষেতে সেচের ব্যবস্থা করা হয়।

Advertisement

তরমুজ চাষীরা জানান, এসব জমিতে আগে কোন ফসল হতো না। এলাকায় একটি মাত্র ভূগর্ভ্যস্থ পানির সেচ পাম্প দিয়ে বিস্তৃত এলাকায় সেচ দেয়া সম্ভব হচ্ছে না বলেও কৃষকরা জানান,সেচ সুবিধা ও সহজ শর্তে কৃষিঋণ দেয়াসহ প্রয়োজনীয় সহায়তা নিশ্চিত করা গেলে পতিত জমিতে তরমুজ চাষে অনেক কৃষকই আগ্রহী হয়ে উঠতে পারেন।

এবার নোয়াখালির চর মন্ডলিয়া ও গুল্লাখালিতেও প্রায় ৮০ একর জমিতে তরমুজের চাষ হয়েছে।