চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘নো সাকিব, নো ক্রিকেট, নিষেধাজ্ঞা মানি না, মানবো না’

শাস্তি প্রত্যাহারের দাবিতে মাগুরায় মানববন্ধন-বিক্ষোভ

আইসিসি’র দেয়া দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবিতে সাকিব আল হাসানের নিজ জেলা মাগুরায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। বুধবার শহরের সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের সামনে ‘মাগুরাবাসী ও খেলোয়াড় বৃন্দ’ ব্যানারে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

‘নো সাকিব, নো ক্রিকেট, সাকিবকে দেয়া নিষেধাজ্ঞা মানি না মানবো না’ -সেখানে এমন শ্লোগান দেন বিক্ষোভকারীরা।

২০১৮ সালে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের মধ্যে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজ ও একইবছর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল সাকিবকে। তিনি সেটা যথাযথ কর্তৃপক্ষ অর্থাৎ, আইসিসির অ্যান্টি করাপশন ইউনিটকে জানাননি। তাতে সবধরনের ক্রিকেট থেকে বাংলাদেশের সদ্যসাবেক টেস্ট ও টি-টুয়েন্টি অধিনায়ককে দু-বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভে বক্তব্য রাখেন জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার মেহেদী হাসান উজ্জ্বল, মাগুরার ক্রীড়া সংগঠক বারিক আনজাম বারকি, সাবেক ফুটবলার আকরাম হোসেন নান্নু, মহাসিন, আরিফসহ অনেকে।

বিজ্ঞাপন

বক্তারা বলেন, অন্যায়ভাবে সাকিবের উপর এই নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দেয়া হয়েছে। এই শাস্তি অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানান তারা।

আইসিসি সাকিবকে দুই বছরের জন্য সবধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করার খবরে মঙ্গলবার রাতেই মাগুরার ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে হতাশা নেমে আসে। খবর জানার পর শহরের মানুষ এর তীব্র নিন্দা জানায়। চায়ের দোকান, হাট-বাজার, মার্কেটসহ মাগুরা শহরের প্রতিটি মানুষ এ শাস্তি শোনার পর মর্মাহত হন।

জেলার অন্যতম ক্রীড়া সংগঠক ও ইয়াং স্টার একাডেমির পরিচালক বাকির আনজাম বারকি বলেন, সাকিব ক্রিকেট থেকে সরে থাকা বাংলাদেশের জন্য বড় বিপর্যয়। সামান্য ভুলের কারণে তার এ দায় আমরা মাগুরাবাসী মেনে নিতে পারছি না। একজন ভালো খেলোয়াড় দলের জন্য খুবই জরুরী। আলরাউন্ডার বলেই তার চাহিদা অনেক বেশি। সাকিব দলে থাকা মানেই দলের জন্য অনেক শক্তি।

শেয়ার করুন: