চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নোবেলের স্বপ্নভঙ্গ, ভক্তরাও হতাশ!

প্রায় এক বছর আগে শুরু হওয়া পশ্চিম বাংলার জনপ্রিয় সংগীত রিয়েলিটি শো ‘সা রে গা মা পা’র পর্দা নামছে শিগগির। সম্প্রতি রেকর্ড হয়েছে এর গ্র্যান্ড ফিনালে, এমনটাই শোনা যাচ্ছে। অফিশিয়ালি কে চ্যাম্পিয়ন আর কে রানার আপ হয়েছেন, এ বিষয়টিও গোপন রাখছে আয়োজক কর্তৃপক্ষ।

তবে গ্র্যান্ড ফিনালেতে উপস্থিত ছিলেন এমন একাধিক ব্যক্তি সোশাল মিডিয়াতে চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করেছেন। আর তাতেই ‘সা রে গা মা পা’ চর্চায় মশগুল বাঙালি শ্রোতা দর্শক। বিশেষ করে এই রিয়েলিটি শোয়ের ফাঁস হওয়া ফলাফল শুনে আশাহত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকা বাংলাদেশের তরুণ শিল্পী মাঈনুল আহসান নোবেল-এর ভক্ত অনুরাগীরা।

বিজ্ঞাপন

‘সা রে গা মা পা’র শুরু থেকেই বিচারকদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে ছিলেন নোবেল। প্রতি অ্যাপিসোডেই আসর মাতিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশের এই তরুণ গায়ক। তার গানে মুগ্ধ হয়ে পশ্চিম বাংলা ও বাংলাদেশে তৈরী হয়েছে অগনিত ভক্ত শ্রোতা। বিচারকদের আশীর্বাদ আর নিজের আত্মবিশ্বাসের জোরেই হয়তো নোবেলও মনে মনে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্নেই বিভোর ছিলেন, সাথে সাথে তার দুই বাংলার ভক্তরাও!

কিন্তু ‘সা রে গা মা পা’র চূড়ান্ত ফলাফল ফাঁস হওয়ার পর নোবেলের স্বপ্ন ভঙ্গের ঘটনা যেমন আঁচ করা গেছে, তেমনি প্রকাশ্যেই নিজেদের হতাশার কথা ব্যক্ত করছেন তার ভক্ত অনুরাগীরা। এমনকি সোশাল মিডিয়াতেও ক্ষোভ জানাচ্ছেন তার বহু ভক্ত।

তবে ‘সা রে গা মা পা’র ফলাফল নিয়ে গ্র্যান্ড ফিনালে প্রচার হওয়ার আগেই কিছু বলতে নারাজ নোবেল। তারসঙ্গে যোগাযোগ করা হলে সাফ জানিয়ে দেন, যেহেতু গ্র্যান্ড ফিনালে আগামী ২৮ জুলাই প্রচার হবে সেহেতু অগ্রীম এ বিষয়ে কিছু বলতে চাই না। একই সাথে দর্শক ভক্তদেরও নেতিবাচক কিছু না করার আহ্বান জানান এই তরুণ।

এদিকে ‘সা রে গা মা পা’র গ্র্যান্ড ফিনালে নিয়ে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে যে,  জি বাংলার জনপ্রিয় এই সংগীত রিয়েলিটি শো’র গ্র্যান্ড ফিনালে রেকর্ড হয় গত ২৯ জুন আর চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন অঙ্কিতা। যৌথভাবে ১ম রানারআপ গৌরব ও স্নিগ্ধজিৎ এবং ২য় রানারআপ হয়েছেন প্রীতম ও মাঈনুল আহসান নোবেল!

Bellow Post-Green View