চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নেপালি ঝড়ে চুরমার টি-টুয়েন্টির বহু রেকর্ড

কোহলি-স্মিথ-গেইলদের হারিয়ে দিলেন পরশ

নেপালের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টুয়েন্টিতে সেঞ্চুরি করেছেন পরশ খাদকা। শনিবার নেপালের খেলা ছিল সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে। ৫২ বলে ১০৬ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে দলকে জিতিয়েছেন পরশ। তার ঝড়ো ইনিংস সাজানো ৭ বাউন্ডারি আর ৯ ওভার বাউন্ডারিতে।

তাতে ১৫২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৩১ বছরের পরশের ঝড়ে সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে টি-টুয়েন্টি সিরিজে প্রথম ম্যাচে ৯ উইকেটে জয় পায় নেপাল। দেশটির হয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে একদিনের ম্যাচেও প্রথম শতরান এসেছিল পরশের থেকেই।

বিজ্ঞাপন

এখানেই পরশের কৃতিত্বের শেষ নয়। টি-টুয়েন্টিতে ইতিহাসের প্রথম অধিনায়ক হিসেবে রান তাড়া করে শতরান করার নজিরেও তিনি প্রথম। মাত্র ৪৯ বলে শতরান পূর্ণ করেন তিনি। এই পথে বিরাট কোহলি, স্টিভেন স্মিথ এবং ক্রিস গেইলের মতো কিংবদন্তি ক্রিকেটারদের পেছনে ফেলে দেন পরশ। তারা কেউই এমন কীর্তি গড়তে পারেননি। পাশাপাশি এশীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে তার শতরান চতুর্থ দ্রুততম।

দেড়শর উপর রানতাড়া করতে নেমে দ্বিতীয় উইকেটে আরিফ শেখের সঙ্গে ১৪৫ রানের জুটি উপহার দেন পরশ। টি-টুয়েন্টিতে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে রান তোলার নিরিখে তাদের দুজনের ১৪৫ রান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পঞ্চম স্থানে থাকছে। পরশের সঙ্গী আরিফ ৩৮ বলে ৩৯ করেন।

বিজ্ঞাপন

নেপাল-সিঙ্গাপুর ম্যাচে আরও এক নজির দেখেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। রানতাড়া করার সময় শতরান রয়েছে এমন ইনিংসের এটাই কোনো দলের সর্বনিম্ন স্কোর। এর আগে ২০১৮ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়া ৫ উইকেট হারিয়ে তুলেছিল ১৬১। শতরান করেছিলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (১০৩)।

পরশের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ভর করে নেপাল সিঙ্গাপুরের টার্গেট চার ওভার বাকি থাকতেই ছুঁয়ে ফেলে।

এর আগে সিঙ্গাপুর টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। অধিনায়ক টিম ডেভিস দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেন। ৬৪ রানে ইনিংসে শেষপর্যন্ত অপরাজিত থাকেন তিনি।

অন্যদিকে, নেপালের তারকা স্পিনার সন্দীপ লামিচানে কোনো উইকেট নিতে ব্যর্থ হলেও বল হাতে কৃপণ ছিলেন। চার ওভারের কোটায় মাত্র ১৮ রান খরচ করেছেন। নেপালের অন্য বোলারদের মধ্যে কেসি কারেন ৩৪ রানে ২ উইকেট নেন। সুশান ভারির দখলে যায় ১ উইকেট।

Bellow Post-Green View