চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নেটফ্লিক্সে ইমপ্রেসের প্রথম ছবি

বিশ্বের ১৪ কোটি দর্শকের সামনে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের আলোচিত ছবি ‘কমলা রকেট’

এখন থেকে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও জনপ্রিয় অনলাইন স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম নেটফ্লিক্সে দেখা যাবে গেল বছর মুক্তি পাওয়া ইমপ্রেস টেলিফিল্মের আলোচিত ছবি ‘কমলা রকেট’। খবরটি চ্যানেল আই অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন ইমপ্রেস টেলিফিল্মের কনসালটেন্ট (ফিল্ম) আবু শাহেদ ইমন। 

সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ থেকে নেটফ্লিক্সে প্রথমবার জায়গা করে নিয়েছে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর পরিচালনায় ‘টেলিভিশন’ ও ‘পিঁপড়াবিদ্যা’ নামের দুটি ছবি। যারমধ্যে ‘পিঁপড়াবিদ্যা’র সহ-প্রযোজক হিসেবে ছিলো ইমপ্রেস টেলিফিল্ম। তবে একক প্রযোজক হিসেবে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ‘কমলা রকেট’-ই প্রথম প্রযোজিত ছবি, যা নেটফ্লিক্সের মতো বৃহৎ অনলাইন স্ট্রিমিং প্লাটফর্মে স্থান করে নিলো।

বিজ্ঞাপন

আর এতে ভীষণ আনন্দিত ইমপ্রেস টেলিফিল্ম ও ‘কমলা রকেট’-এর সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা।

আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের চলচ্চিত্র নিয়ে কাজ করেন নির্মাতা আবু শাহেদ ইমন। ‘কমলা রকেট’ নিয়েও ‘নেটফ্লিক্স’-এর সঙ্গে পিচিংয়ে ছিলেন তিনি। সোমবার থেকে নেটফ্লিক্সে ‘কমলা রকেট’ দেখা যাচ্ছে এমন খবরে তাই একটু বেশীই উচ্ছ্বসিত ইমন।

চ্যানেল আই অনলাইনকে আবু শাহেদ ইমন জানান, এই মুহূর্তে সারা বিশ্বে নেটফ্লিক্সের সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা ১৩ কোটি ৭০ লাখ। এতো বিশাল সংখ্যক দর্শক শ্রেণির সামনে বাংলাদেশের খুব কম ছবিই এরআগে প্রতিনিধিত্ব করেছে। বাংলাদেশ থেকে এরআগে নেটফ্লিক্সে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর দুটি ছবি গিয়েছে, যারমধ্যে একটির সহ-প্রযোজক ইমপ্রেস। তবে এবারই প্রথম ইমপ্রেস টেলিফিল্ম থেকে সরাসরি কোনো ছবি নেটফ্লিক্সের মতো প্লাটফর্মে দেখানো হচ্ছে, এটা আমাদের জন্য ভীষণ আনন্দের।

নেটফ্লিক্সে ‘কমলা রকেট’-এর যাত্রাকে বাংলাদেশের নতুন দিনের নতুন নির্মাতাদের জন্য আশাব্যঞ্জক বলেও মন্তব্য করেন ইমন।

‘কমলা রকেট’কে বাংলাদেশের নতুন দিনের গুরুত্বপূর্ণ ছবি হিসেবে আখ্যা দিয়ে আবু শাহেদ ইমন বলেন, ছবিটি নিয়ে যখন নেটফ্লিক্সের সাথে পিচ করি তার দু’তিন সপ্তাহের মধ্যেই তাদের ইতিবাচক মতামত জানায়।

নেটফ্লিক্সে বিভিন্ন কন্টেন্ট প্রতিনিয়ত বিশ্বের প্রায় ১৪ কোটি মানুষ দেখছে। এমন একটি জায়ান্ট প্লাটফর্মে সিনেমার মধ্য দিয়ে বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের সংস্কৃতিও তুলে ধরার বড় সুযোগ থাকে বলে মন্তব্য করেন ইমন।

এদিকে নেটফ্লিক্সে নিজের ছবি স্থান করে নেয়ায় উচ্ছসিত নির্মাতা নূর ইমরান মিঠু।

গেল বছর বাংলাদেশে মুক্তি পাওয়ার পর ইতিমধ্যে বেশকিছু চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শন ও পুরস্কার অর্জন করেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রশংসিত ‘কমলা রকেট’ চলচ্চিত্রটি। সম্প্রতি ভারতের গোয়া আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব, ফিল্ম মার্কেটসহ ভারত ও নেপালের আরো বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে দেখানো হয় ছবিটি।

গত বছর শ্রীলঙ্কার জাফনা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘বেস্ট ডেব্যু ডিরেক্টর’-এর পুরস্কারটিও অর্জন করেন ছবির নির্মাতা মিঠু। কথাসাহিত্যিক শাহাদুজ্জামানের ‘মৌলিক’ ও ‘সাইপ্রাস’ নামের দুটি গল্প অবলম্বনে ‘কমলা রকেট’-এর চিত্রনাট্য করেছেন শাহাদুজ্জামান ও মিঠু। ছবির গল্পে‘কমলা রকেট’ মূলত একটি স্টিমারের নাম। এই স্টিমারটিই পুরো বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে।

ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন এক সময়ের তুমুল জনপ্রিয় অভিনেতা ও বর্তমানের তুখোড় নির্মাতা তৌকীর আহমেদ। ছবিতে দালাল চরিত্রে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম। এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে আছেন জয়রাজ, সামিয়া সাঈদ, সেওতি, ডমিনিক গোমেজ, বাপ্পা শান্তনু, সুজাত শিমুল, শহীদুল্লাহ সবুজ, আবু রায়হান রাসেল।

এদিকে চলতি মাসের ১০ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিতত্র উৎসব-২০১৯। আর এই উৎসবে বাংলাদেশের একমাত্র ছবি হিসেবে লড়বে (প্রতিযোগিতা বিভাগ) ‘কমলা রকেট’।

Bellow Post-Green View