চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নেইমার-মার্টিনেজ কাউকেই আনা হচ্ছে না বার্সার

পিএসজির নেইমারকে নিয়ে তাও নানা কথা ছড়িয়ে ছিল, কিন্তু ইন্টারের লৌতারো মার্টিনেজের ক্ষেত্রে বার্সেলোনা ছিল খুল্লামখুল্লা! আপাতত দুই সম্ভাবনাই আলোর মুখ না দেখার কাছাকাছি। ক্লাবটির সভাপতি যোসেপ মারিয়া বার্তেমেউ বলছেন, মহামারীর কারণে দুই দলবদলই অসম্ভব।

করোনাভাইরাস মহামারী অন্য ক্লাবগুলোর মতো আর্থিক আঘাত হেনেছে বার্সা একাউন্টেও। সেজন্য পিএসজির ব্রাজিলিয়ান ও ইন্টার মিলানের আর্জেন্টাইন তারকাকে দলে টানা নিয়ে আপাতত পিছপা স্প্যানিশ ক্লাবটি।

বিজ্ঞাপন

স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, মহামারীকালে লক্ষ্যের চেয়ে অন্তত ২০০ মিলিয়ন কম কামিয়েছে বার্সা। সেই ধাক্কা লেগেছে দলবদলে।

বিজ্ঞাপন

বার্তেমেউ বলছেন, ক্লাব ২০০ মিলিয়ন ইউরো হারিয়েছে মার্চ-জুনে। এই ধাক্কা তিন এমনকি চার বছরও স্থায়ী হতে পারে। পরিস্থিতির মোড় না ঘুরলে স্টেডিয়ামের গেট থেকে জাদুঘর-শোরুম পর্যন্ত বন্ধ থেকেই যাবে, যার প্রভাব পড়তে থাকবে একাউন্টে।

‘বার্সা গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই লৌতারোর ব্যাপারে ইন্টারের সাথে কথা বলে এসেছে, কিন্তু দুই ক্লাবের যৌথ সিদ্ধান্তেই আলোচনা থমকে গেছে। বর্তমান পরিস্থিতি বড় দলবদলের অনুমতি দেয় না।’

‘বর্তমান পরিস্থিতিতে, না। এমনকি পিএসজিও তাকে বিক্রি করতে চায় না। যা বলে দেয় সে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়দের একজন। গত গ্রীষ্মে আমরা নেইমারকে আনার অনেক চেষ্টাই করেছি, কিন্তু এই গ্রীষ্মে আমরা চেষ্টাই করতে পারছি না।’ সোজাসাপ্টা কথা বার্সা সভাপতির।