চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নেইমারের দলবদল দুর্নীতি অভিযোগ থেকেও মুক্ত বার্সা

সুসময় বুঝি একেই বলে! দুদিন আগে নিরপেক্ষ নিরীক্ষা শেষে খেলোয়াড়দের নামে কুৎসা রটানোর অভিযোগ থেকে মুক্তি পেয়েছে বার্সেলোনা। এবার আরেক গুরুতর অভিযোগ থেকেও মুক্তি মিলল ক্লাবটির। ক্রীড়া আদালত থেকে ঘোষণা এসেছে, ২০১৩ সালে নেইমারকে দলে টানতে কোনো দুর্নীতির আশ্রয় নেয়নি বার্সা। সুতরাং, ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের সাবেক ক্লাব সান্তোসের কোনো অভিযোগও আর টিকছে না!

২০১৩ সালে নেইমারকে দলে টানার পর থেকেই দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে বার্সার পেছনে লেগে ছিল সান্তোস। নেইমার বার্সা ছেড়ে পিএসজিতে গেছেন, কিন্তু মুক্তি মিলছিল না কাতালানদের।

বিজ্ঞাপন

ব্রাজিলিয়ান ক্লাবটির দাবি ছিল, নেইমারকে দলে টানতে যে দলবদল মূল্য দেখিয়েছে বার্সা, প্রকৃত মূল্য তার থেকে অনেকবেশি। যাতে তাদের ক্ষতি হয়েছে ৬ কোটি ১৩ লাখ ইউরোর কাছাকাছি। পাওনা আদায়ে পরে ক্লাবটি ফিফার কাছে নালিশ জানায়। যা ক্রীড়া আদালতে স্থানান্তরিত হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার সান্তোসের সেই মামলা খারিজ করে দিয়েছে ক্রীড়া আদালত। আদালতের পক্ষ থেকে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘নেইমার জুনিয়রকে নিয়ে দলবদলে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সান্তোস যে ৬ কোটি ১৩ লাখ ইউরোর দাবি করেছিল, ক্রীড়া আদালত তা বাতিল করে দিয়েছে।’

দলবদলে সান্তোসকে ১৭ মিলিয়ন ইউরো দিয়েছিল বার্সা। তবে সান্তোসের দাবি প্রকৃত মূল্য ৮৩ মিলিয়ন ইউরো। অর্থের বাকি অংশটা নেইমার ও তার বাবা নেইমার সিনিয়রের এনএন্ডএন কোম্পানিকে দেয় বার্সা। ক্রীড়া আদালত বলেছে, সেখানেও কোনো দুর্নীতি খুঁজে পাওয়া যায়নি।

সান্তোস থেকে যে দাবি করা হয়েছিল, সেখানে বার্সার এমন কোনো আচরণ পরিলক্ষিত হয়নি যাতে একে দুর্নীতি বলা চলে। মত আদালতের।