চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নিয়ন্ত্রণ সংস্থাগুলোর তদারকির অভাবেই সমস্যায় পিপলস লিজিং

নিয়ন্ত্রণ সংস্থাগুলোর তদারকির অভাবেই পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত পিপলস লিজিংসহ আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো সমস্যায় পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

সোমবার পিপলস লিজিংয়ের আমানতকারীদের একটি প্রতিনিধিদল আমানত ফেরত পাওয়ার বিষয়ে অর্থমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, দুর্নীতিগ্রস্ত এসব প্রতিষ্ঠান কিভাবে চলে তা আমি জানি না। তবে দুর্নীতির সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, শুধু সাবেক পরিচালনা পর্ষদ নয়, বর্তমান পরিচালনা পর্ষদের কোনো সদস্যের বিরুদ্ধে দুর্নীতির প্রমাণ মিললে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

পিপলস লিজিংয়ের আমানতকারীদের টাকা কত দিনের মধ্যে ফেরত দেয়া হতে পারে জানতে চাইলে মুস্তফা কামাল বলেন, কোনো অডিট ফার্মকে সময় বেঁধে দেয়া যায় না। একনাবিন নামে একটি অডিট ফার্মকে পিপলস লিজিংয়ের আর্থিক বিবরণী পর্যবেক্ষণের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তারা কাজ করছে। তাদের প্রতিবেদনের উপর ভিত্তি করে আইন অনুযায়ী এবং প্রধানমন্ত্রীর সাথে পরামর্শ করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, পিপলসের আমানতকারীরা আজ (সোমবার) আমার সাথে দেখা করে সহায়তা চেয়েছেন। সরকারের পক্ষ থেকে তাদের সহায়তা করা হবে। ইতিমধ্যে পিপলস লিজিংয়ে অবসায়ক নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। অবসায়ক পিপলসের দায়-দেনার বিষয়ে বিস্তারিত জানাবেন। এরপর অবসায়ক ও অডিট ফার্মের প্রতিবেদনের উপর নির্ভর করে পরবর্তী সিদ্ধান্তগুলো নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

Bellow Post-Green View