চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নিষেধাজ্ঞার ৬ মাস পূর্ণ হল সাকিবের

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার পর তা গোপন করায় সাকিব আল হাসানকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি, যার মধ্যে একবছরের শাস্তি দোষ স্বীকার করায় স্থগিত থাকবে। প্রথম একবছরের নিষেধাজ্ঞা কাটানোর সময়ে নতুন করে কোনো আইন না ভাঙলে ১২ মাসের মাথায় তিনি ফিরতে পারবেন ক্রিকেট মাঠে। সে হিসেবে এ বছরের ২৯ অক্টোবর ব্যাট-বল হাতে নামতে পারবেন টাইগার অলরাউন্ডার।

আইসিসি সাকিবকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করে গত বছরের ২৯ অক্টোবর। ২৮ এপ্রিল ২০২০, পূর্ণ হয়েছে তার নিষেধাজ্ঞার ৬ মাস। সব ঠিক থাকলে আর ৬ মাস পরই নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্ত হবেন সাকিব। উঠে যাবে ‘নিষিদ্ধ’ ট্যাগলাইন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ক্রিকেট থেকে নিষেধাজ্ঞার প্রথম ৬ মাসে সাকিব অংশ নেন বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে। করোনাভাইরাসের দুর্যোগের সময়ে অসহায় মানুষের সহায়তা করতে নিজের নামে গড়ে তুলেছেন ‘সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশন’। বিশ্বকাপে খেলা ব্যাট নিলামে ২০ লাখ টাকা বিক্রি করে অর্থ বিলিয়ে দিয়েছেন দুস্থদের মাঝে। অনলাইনে চালিয়ে যাচ্ছেন সব কার্যক্রম।

বিজ্ঞাপন

এক মাসেরও বেশি সময় ধরে পরিবার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে আছেন সাকিব। গত সপ্তাহে তার পরিবারে এসেছে নতুন অতিথি। দ্বিতীয়বারের মতো কন্যাসন্তানের বাবা হয়েছেন টাইগার তারকা।