চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নির্বাচনী এলাকায় বঙ্গবন্ধুর ছবি বিতরণ করলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান আজ তার নিজ নির্বাচনী এলাকায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিতরণ করেছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি মুখে যা বলি তা কাজে প্রমাণ করি। 

তিনি জানান: গতকাল দুপুরে মন্ত্রণালয়ে আমার নিজকক্ষে সাংবাদিকদের সাথে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে প্রেস ব্রিফিংকালে ‘বঙ্গবন্ধুর ছবি ১৮ কোটি বাঙালির প্রতিটি ঘরে টানানোর বিষয়ে আমার ইচ্ছা, অনুরোধ ব্যক্ত করেছিলাম।’ আমার সেই বক্তব্য বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যেই আজ আমার উপজেলা সরিষাবাড়ী আওয়ামী লীগের নিকট জাতির পিতার ছবি হস্তান্তর করেছি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বুধবার বিকেলে সরিষাবাড়ি পৌর আওয়ামী লীগের বর্ধিতসভায় সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক এর নিকট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ছবি হস্তান্তর করেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা.মুরাদ হাসান এমপি।

বিজ্ঞাপন

এছাড়াও বর্ধিতসভায় বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় তারেক রহমান সরকারের ভেতরে আরেকটি ‘সরকার’ তৈরি করেছিল। দেশের সম্পদ লুটপাট করেছিল। এছাড়া আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশূন্য করতে শেখ হাসিনাকে প্রধান টার্গেট করে ২০০৪ সালে একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা চালিয়েছিল। সেদিন আওয়ামী লীগের ২২জন নেতাকর্মীসহ ২৪ জন মারা যান। তারেক রহমানের মদদেই সারাদেশে জঙ্গিবাদের উত্থান হয়।

তারেক জিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেন, বিদেশের মাটিতে বসে আস্ফালন না করে, যদি আপনার সাহস থাকে তাহলে দেশে আসুন, আপনার সাথে খেলতে চাই, আপনি কতো বড় খেলোয়াড় তা দেখতে চাই। তারেক রহমান দেশ ছেড়ে বিদেশের মাটিতে আয়েশি জীবন যাপন করছেন, এতো টাকা আসে কোথা থেকে? এগুলো দেশের মানুষ জানে। দেশের টাকা লাগেজ ভর্তি করে বিদেশে পাচার করার ইতিহাস জাতি ভুলে যায় নাই। এখনও আওয়ামী লীগ সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছেন তিনি। কিন্তু ষড়যন্ত্র করে লাভ হবে না, দেশের জনগণ আওয়ামী লীগের সঙ্গে আছে এবং আগামীতেও থাকবে।

আজ সরিষাবাড়ি পৌর আওয়ামী লীগের বর্ধিতসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিজানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজুর সঞ্চালনায় সভার বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশা, সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ এবং সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য করেন জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু জাফর শিশা।