চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নিরবে দেশের অর্ধশতাধিক প্রেক্ষাগৃহে জিতের ‘প্যানথার’

কোনো রকম প্রচার প্রচারণা ছাড়াই একেবারে আচমকা বাংলাদেশের ৫০টির বেশি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেল কলকাতার জনপ্রিয় নায়ক জিত অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘প্যানথার’।

সাফটা চুক্তির মাধ্যমে দেশব্যাপী ছবিটি শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) মুক্তি দিয়েছে তিতাস কথাচিত্র।

বিজ্ঞাপন

প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার আবুল কালাম আজাদ শুক্রবার দুপুরে চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, ‘মিসড কল’ ছবির বিনিময়ে বাংলাদেশে মুক্তি দেয়া হয়েছে ‘প্যানথার’। ঢাকার মধুমিতা, পুনম, এশিয়াসহ ৫৬টির মতো সিনেমা হলে চলছে জিতের এই ছবি।

সাফি উদ্দিন সাফির পরিচালনায় বাপ্পী চৌধুরী অভিনীত ‘মিসড কল’ মুক্তি পেয়েছিল ২০১৭ সালের ৩ মার্চ। অন্যদিকে, জিতের প্যানথার মোটামুটি নতুন ছবি। ভারতের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে গেল ১৪ আগস্ট ছবিটি পশ্চিমবঙ্গে মুক্তি পেয়েছে।

এদিকে জিতের ছবি নিরবে মুক্তি দেয়া প্রসঙ্গে আবুল কালাম জানান, আমদানি ছবি মুক্তি দিতে অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়। মিডিয়াতে জানাজানি হলে অদৃশ্য বাঁধা আসে, যাতে বাইরে ছবি এদেশে না চলে। ওইসব বাঁধা পার হতে মাস দুয়েক সময় লাগে। এরমধ্যে ওপারের ছবি পাইরেসি হয় বা অনলাইনে চলে আসে। যার ফলে দর্শক আর হলে এসে দেখে না। তাই নিরবে মুক্তি দিয়েছি।

যেহেতু কিছু মানুষ নিয়মিত হলে এসে এখনো ছবি দেখছে, অথচ সে তুলনায় আমাদের এখানে ছবি হচ্ছে না। তাই আমাদের ছবি সংকটের কারণে কলকাতার ছবি এনে চালাচ্ছি। বলছিলেন তিতাস কথাচিত্রের এই কর্ণধার।

তিনি আরো বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ছবির ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। মোট ৩১ টি ছবি প্রযোজনা করেছি। এখন প্রযোজনা করলে টাকা ফেরতের সম্ভাবনা কম। তাই গত কয়েকবছর ধরে ছবি আমদানি করছি। চ্যাম্প, সুলতান, বলো দুগ্গা মাঈকি, তোমাকে চাই, গার্লফ্রেন্ড ছবিগুলো আমার হাউজ থেকে মুক্তি পেয়েছে।

Bellow Post-Green View