চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নিজ সম্পদের ২৮ শতাংশ করোনা মোকাবেলায় দেবেন টুইটার সিইও

নিজের সম্পদের ২৮ শতাংশ (১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় অনুদান হিসেবে ব্যয় করার ঘোষণা দিয়েছেন টুইটার ও পেমেন্ট অ্যাপ স্কয়ারের প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডর্সি।

এক টুইটে জ্যাক ডর্সি এ তথ্য জানিয়েছেন। ৪৩ বছর বয়সী ডর্সি বর্তমানে টুইটার এবং স্কয়ার উভয় প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি টুইটারে এ ঘোষণা দিয়ে লিখেছেন, প্রয়োজনীয়তা ক্রমবর্ধমান জরুরি হয়ে পড়েছে। তিনি তার এই অর্থ অনুদান নির্দিষ্ট ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে প্রদান করবেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাউরাসের প্রকোপ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। সেখানে ভেন্টিলেটর এবং পিপিই ও মাস্কের মারাত্মক সংকট দেখা দিয়েছে। ব্যবসায়ি অনেক প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন ব্যক্তি এ সংকট মোকাবিলায় লড়াই করছে৷

তিনি বলছেন, তিনি স্কয়ারের শেয়ার ব্যবহার করছেন, টুইটারের নয়। কারণ সেখানে আরো মালিকানা আছে।

কোভিড-১৯ মহামারী শেষ হয়ে আসলে এই তহবিলের ফান্ড নারী শিক্ষা, স্বাস্থ্য এবং জরুরি গবেষণায় ব্যবহৃত হবে জানিয়ে ডর্সি বলছেন, এমন জায়গায় তিনি অনুদান দিতে চেয়েছেন যার প্রভাব তিনি জীবদ্দশায় দেখে যেতে পারবেন।

ডরসির আগে করোনা মোকাবিলায় বহু মার্কিন ধনী এগিয়ে এসেছেন। তাদের মধ্যে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ ৩০ মিলিয়ন ডলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, আমাজনের জেফ বেজোস এই সময়ের মধ্যে ক্ষুধায় লড়াই করা ব্যক্তিদের সহায়তার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ব্যাংকগুলিকে ১০০ মিলিয়ন অনুদান দিয়েছেন। অ্যাপলের চিফ টিম কুক মার্চ মাসে ঘোষণা করেন যে, সংস্থাটি ইতালিতে চিকিৎসা সহায়তা দেবেন।