চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নিজের ভুল থেকে রোহিতকে শিক্ষা নিতে বললেন শাস্ত্রী

দলে ফিরলে বড় রকমের চোটে পড়তে পারেন, রোহিত শর্মার মেডিকেল রিপোর্ট দেখে এমন হুঁশিয়ারি রবি শাস্ত্রীর। তাই জাতীয় দলে ফেরার ব্যাপারে ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে তাড়াহুড়ো করতে নিষেধ করে দিয়েছেন ভারতের কোচ।

চলতি আইপিএলে হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পাওয়া রোহিত আস্তে আস্তে সুস্থ হয়ে উঠছেন ঠিকই, যদিও জাতীয় দলে খেলার মতো পুরোপুরি ফিট নন। সেজন্য তাকে অস্ট্রেলিয়া সফরের দলে রাখেননি নির্বাচকরা।

বিজ্ঞাপন

আইপিএলে খেলছেন অথচ অস্ট্রেলিয়া সফরে জায়গা পাননি বলে নির্বাচকদের সমালোচনায় বিদ্ধ করছেন রোহিত ভক্তরা। সুনীল গাভাস্কার, বীরেন্দ্রর শেবাগের মতো সাবেকরাও দাবি তুলেছেন রোহিতের বাদ পড়ার বিষয়টি পরিষ্কার করার জন্য।

সেটি নিয়ে মুখ খুলেছেন শাস্ত্রী। রোহিতের বাদ পড়ার পেছনে তার হাত নেই বলেই টাইমস নাউয়ের কাছে দাবি করেছেন। আবার নির্বাচকদের সিদ্ধান্ত সঠিক বলেও মত দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

‘বিষয়টা মেডিকেল টিম দেখভাল করছে। আমরা এতে জড়াতে চাচ্ছি না। তারা নির্বাচকদের কাছে রিপোর্ট দিয়েছে, নির্বাচকরা তাদের কাজ করেছেন।’

‘আমার কিছু বলার নেই, নির্বাচক দলের অংশও নই। যতটুকু জানি রোহিত নিজেকে নিজে চোটে ফেলার ঝুঁকিতে আছে।’

হতাশাগ্রস্ত রোহিতকে তার নিজের ভুল না করার পরামর্শও দিয়েছেন শাস্ত্রী, ‘একজন খেলোয়াড়ের জীবনে চোটের চেয়ে হতাশাজনক আর কিছু নেই। কখনো কখনো আপনি চাইবেন দ্রুত দলে থেকে বেড়িয়ে আরও দ্রুত সুস্থ হয়ে ফিরে আসতে।’

‘আমি আমার নিজের ক্যারিয়ার ছুঁড়ে ফেলেছিলাম। ১৯৯১ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়ে নিজের ক্যারিয়ার শেষ করে দিয়েছি। সেসময় যদি সেই সফরে না গিয়ে ৩-৪ মাস বিশ্রাম নিতে পারতাম, আমার ক্যারিয়ারটা আরও পাঁচ বছর লম্বা হতো।’

‘নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি। আমার ক্ষেত্রেও ঠিক এটাই হয়েছিল। চিকিৎসকরা আমাকে বলেছিলেন না যেতে। লোভে পড়ে গিয়েছিলাম। তখন দারুণ ফর্মে ছিলাম, তাই খুব দ্রুত ফিরতে চাইছিলাম। আশা করবো রোহিত আর ইশান্ত শর্মা এই ভুল করবে না ’