চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নিজের কথা গুগলকে দিয়ে লেখাতে চাইলে যা করবেন

কণ্ঠস্বর শুনে তার লিখিত রূপ দেয়া এবং নোট তৈরি আরও সহজ করবে গুগল ডকস । শুধু মুখে বলেই গুগল ডকসকে দিয়ে লিখিয়ে নেয়া যাবে প্রয়োজনীয় যেকোন কিছু।

এখন একজন ব্যক্তিকে যেহেতু দিনে বহু কাজ সামলাতে হয়, তাই লেখার কাজটি আরও সহজ করতে গুগল ডকস ব্যবহার আগের চেয়েও সহজ করা হয়েছে। তাই গুগল ডকস ব্যবহার করে কেউ চাইলে নিজের বলা কথাকেই দেখতে পাবেন লিখিত রূপে।

এই সুবিধা পেতে হলে আপনার কম্পিউটারে থাকতে হবে গুগল ক্রোম ব্রাউজার এবং কম্পিউটারের সঙ্গে সংযুক্ত রাখতে হবে একটি কার্যকর মাইক্রোফোন।

যেভাবে কার্যকর হবে গুগল ডকসের ভয়েস টাইপিং
নিজের কণ্ঠের নির্দেশনায় কিছু লিখতে চাইলে গুগল ডকস পেইজের টুলস অপশনের ড্রপডাউন মেন্যুতে যান। এরপর একটি ভাষা নির্ধারণের অপশন আসবে। সেখানে আপনি কোন ভাষায় লিখতে চান সেটি নির্বাচন করুন। এটা করার পর একটি মাইক্রোফোন আইকন দেখা যাবে। এই আইকনে ক্লিক করুন।

বিজ্ঞাপন

এরপর আপনি যা লিখতে চান তা শুদ্ধভাবে উচ্চারণ করলে তাকে লিখিত রূপ দিতে শুরু করবে গুগল ডকস। এখানে দাঁড়ি, কমা অর্থাৎ যতি চিহ্নের ব্যবহারও সহজ। আপনি যেখানে যে চিহ্ন বসাতে চান সেটি উচ্চারণ করলে যতি চিহ্নটি বসে যাবে ঠিক জায়গায়।

শুধু কণ্ঠে উচ্চারিত শব্দের লিখিত রূপই নয় একইভাবে লিখিত কোন কিছুর এডিটও করা যাবে গুগল ডকসে। এডিটিং করতে আপনার কণ্ঠে ‘কপি’, ‘পেস্ট’ এমন নির্দেশনাও দেয়া যাবে।

কিছু সাবধানতা
গুগল ডকসে কণ্ঠের নির্দেশনায় একেবারেই নির্ভুল টাইপ বা লেখা নাও পেতে পারেন। এজন্য লেখা শুদ্ধ করতে ভয়েস টাইপিং অন থাকার পরও আপনি তা ঠিক করে নিতে পারবেন আপনার মাউস-কিবোর্ডের সাহায্যে।

আর গুগল ডকসে ভয়েস নির্দেশনায় টাইপ করতে চাইলে সবচেয়ে ভালো হলো নিরব কোন জায়গা বেছে নেয়া।

বিজ্ঞাপন