চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নিউজিল্যান্ডে সিরিজ ড্র করে ফিরছে বাংলাদেশ

ক্রাইস্টচার্চে হার ইনিংস ও ১১৭ রানে

যে উজ্জীবিত বাংলাদেশকে দেখা গিয়েছিল মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের শুরু থেকেই, সেই দলটি ক্রাইস্টচার্চ গিয়ে ছন্দ হারিয়ে ফেলল। নিউজিল্যান্ডের কাছে ইনিংস ও ১১৭ রানে হেরে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ১-১ ব্যবধানে ড্র করে ফিরছে মুমিনুল হকের দল।

তিন দিনে শেষ হওয়া ম্যাচে প্রাপ্তি লিটন দাসের সেঞ্চুরি। ডানহাতি ব্যাটার করেছেন ১০২ রান। ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে নেমে বাংলাদেশ গুটিয়ে যায় ২৭৮ রানে। জেমিসন ৪টি ও ওয়াগনার নেন ৩টি উইকেট।

হ্যাগলি ওভালে টম ল্যাথামের ডাবল সেঞ্চুরিতে নিউজিল্যান্ড ৫২১ রান তুলে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছিল। জবাবে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ১২৬ রানে। ৩৯৫ রানে পিছিয়ে থেকে ফলোঅন করে টাইগাররা।

হারের ব্যবধান কমানোর লড়াইয়ে খুব খারাপ করেনি বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিং আক্ষেপও বাড়িয়েছে। ইস্, প্রথম ইনিংসটা যদি আরেকটু লম্বা হতো।

ওয়ানডে স্টাইলে খেলেছেন লিটন। ক্যারিয়ারের ২৬তম টেস্টে প্রথম সেঞ্চুরি পাওয়া ব্যাটারকে দ্বিতীয় সেঞ্চুরি পেতে অপেক্ষা করতে হল আর দুই টেস্ট। হ্যাগলি ওভালে তিনি ১১৪ বলে ১০২ রানের ইনিংসটি সাজান ১৪টি চার ও এক ছক্কায়।

বিজ্ঞাপন

প্রায় চারশ রানে পিছিয়ে থেকে শুরু করা দিনের প্রথম সেশনে দুই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় সেশনে হারায় ৩ উইকেট। শেষ সেশনে বাকি ৫ উইকেট।

ইবাদত হোসেনকে ফিরিয়ে ম্যাচের শেষ পেরেকটি টোকেন রস টেলর। ক্যারিয়ারের শেষ টেস্টটি স্মরণীয় করে রাখেন টপঅর্ডার ব্যাটার।

বাংলাদেশের শুরুর চার ব্যাটারই থিতু হয়ে আউট হন। সাদমান ইসলাম ২০, নাজমুল হোসেন শান্ত ২৯, নাঈম শেখ ২৪, মুমিনুল হক ৩৭ করে যান।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের একমাত্র ফিফটি করা ইয়াসির আলি ২ রানে আউট হন। ১২৮ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর লিটন ও নুরুল হাসান সোহানের মধ্যে গড়ে ওঠে দারুণ এক জুটি। ৩৬ রান করে সোহান ফিরলে ভাঙে ১০১ রানের ষষ্ঠ উইকেট জুটি।

মেহেদী হাসান মিরাজ চেষ্টা করেছিলেন লিটনকে সঙ্গ দিতে। ৩০ বলে ৩ রান করে ফেরার পর দ্রুতই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ।

তিন দিনে টেস্ট শেষ হয়ে গেলেও বাংলাদেশ ফিরবে আগের নির্ধারিত ফ্লাইটেই। ১৫ জানুয়ারি ঢাকা ফেরার কথা মুমিনুল হকের দলের। ২১ জানুয়ারি শুরু হবে বিপিএলের অষ্টম আসর।

বিজ্ঞাপন