চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

নায়িকার ক্ষোভ, তিন সিনেমা করলেও সদস্যপদ পাননি

শিল্পী সমিতির নির্বাচন

বিজ্ঞাপন

শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘গঠনতন্ত্রে রয়েছে ৫ টি মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করলে তিনি সমিতির সদস্যপদ ও ভোটাধিকার পাবেন’। তবে অনেকেই দুটি কিংবা একটি সিনেমা মুক্তির পরেও সদস্যপদ দিয়ে ভোটাধিকার দেয়া হয়েছে।

কিন্তু চিত্রনায়িকা অধরা খানের দাবি, তিনটি সিনেমার নায়িকা হয়েও তাকে সদস্যপদ দেয়া হয়নি। ২৮ জানুয়ারি (শুক্রবার) চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দ্বিবার্ষিক নির্বাচন। বরাবরের মতো এবারও দুটি প্যানেল প্রতিযোগিতা করছে।

বৃহস্পতিবার সকালে ক্ষোভ ঝেড়ে অধরা খান তার ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়ে লিখেছেন, আমারও নির্বাচনে ভোট দেওয়ার কথা ছিল। সমিতির চলমান কমিটি কর্তৃক জেনেছিলাম এবার আমিও ভোটার! ভোটার লিস্ট যখন প্রকাশিত হলো সেখানে আমার নাম নেই। উল্লেখযোগ্য চরিত্রে আমার অভিনীত তিন ছবি মুক্তি পাওয়া সত্ত্বেও আমাকে ভোটাধিকার দেয়া হয়নি।

কেন করা হয়েছে, কোন কারণে করা হয়েছে কিংবা কারা করেছে সেটা নিয়ে বিতর্কে যেতে চান না অধরা খান। শিল্পী সমিতির ভোটারদের কাছে বিনীত অনুরোধ জানিয়ে তিনি লেখেন, সত্যিকারের শিল্পীদেরকে আপনাদের নেতা নির্বাচন করুন, যারা ব্যক্তিগত স্বার্থে সুবিধা নিতে নয়, বরং চলচ্চিত্রের সামষ্টিক, সামগ্রিক এবং শিল্পীদের উন্নয়নে কাজ করবেন।

সাময়িকভাবে কিছুমাত্র লাভ এর জন্য ভবিষ্যৎ শিল্পী পরিচয় নষ্ট করবেন না জানিয়ে ‘পাগলের মতো ভালোবাসি’ ছবির এই নায়িকা বলেন, এখনও চাইলে সবাই মিলে এই শিল্পকে অনন্য পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া যাবে বলেই বিশ্বাস করি। কিন্তু সাময়িকভাবে নামমাত্র লাভের জন্য আপনার ভুল সিদ্ধান্তের ভোটে ভুল প্রার্থী নির্বাচিত হলে সেটা অনেকখানি সম্ভব হবে না! যারা এই সময়ে অনেকের বাধা – বিপত্তি পেরিয়ে এগিয়ে এসে চেষ্টা করছেন এই সুন্দর জায়গাটাকে আরও সুন্দর করে তোলার, তাদেরকে সহযোগিতা করুন। প্রকৃত শিল্পীদের কাছেই যেনো শিল্পী সমিতি পরিচালনার দায়িত্ব অর্পণ করা হয়, যাদের হাত ধরেই গোটা চলচ্চিত্র শিল্পের উন্নয়নের ফল্গুধারা বইতে শুরু করবে।

বিজ্ঞাপন

Bellow Post-Green View