চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নাসির উদ্দিন ইউসুফের ৭১

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর বছর ২০২১! আর এই বছরে বীরমুক্তিযোদ্ধা, নাট্য নির্দেশক, চলচ্চিত্র নির্মাতা ও সংগঠক নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু পূর্ণ করলেন ৭১ বছর!

১৯৫০ সালের ১৫ এপ্রিল নাসির উদ্দিন ইউসুফ জন্মগ্রহণ করেন। গুণী এই সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বের জন্মদিনে সংস্কৃতি অঙ্গন সহ, সমাজের বিভিন্ন অঙ্গনের মানুষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন।

নাসির উদ্দিন ইউসুফ মুক্তিযুদ্ধের সময় ছিলেন ক্র্যাক প্লাটুনের গেরিলা। বীরদর্পে যুদ্ধ করে স্বাধীন করেছেন দেশ। তখন তিনি বিশ-একুশ বছরের তরুণ। দেশ স্বাধীন করে দেশের সাংস্কৃতিক মান উন্নয়নে কাজে লেগে যান। প্রখ্যাত নাট্যকার সেলিম আল দীনের সঙ্গে তিনি বাংলা নাটকের শেকড়সন্ধানী কর্মে নিজেকে ব্যাপৃত রেখেছেন। বাংলামঞ্চে উল্লেখযোগ্য অনেক নাটকের নির্দেশক তিনি।

বিজ্ঞাপন

নাসির উদ্দিন ইউসুফ ১৯৭২ সালে নাট্যকার সেলিম আল দীনকে নিয়ে ‘নাট্যক্রম’ মঞ্চদলের সাথে নাটক নির্মাণ শুরু করেন। পরবর্তীতে ১৯৭৩ সালে তারা দুজন মিলে প্রতিষ্ঠা করেন মঞ্চদল ঢাকা থিয়েটার। প্রথমদিকে তিনি পাশ্চাত্য ধারার নাটক পরিচালনা করলেও পরে সেলিম আল দীন রচিত অনেক নাটকের নির্দেশনা দিয়েছেন। এগুলোর মধ্যে কীর্তনখোলা, কেরামতমঙ্গল, হাতহদাই, যৈবতীকন্যার মন, বনপাংশুল, প্রাচ্য ও নিমজ্জন উল্লেখযোগ্য।

পরবর্তী চলচ্চিত্র নির্মাণেও নিজের দক্ষতার পরিচয় দেন নাসির উদ্দিন ইউসুফ। নির্মাণ করেছেন একাত্তরের যীশু, গেরিলা ও আলফার মতো দুর্দান্ত চলচ্চিত্র। এরমধ্যে ‘গেরিলা’ পেয়েছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। শুধু তাই নয়, কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সেরা চলচ্চিত্রের মর্যাদাও লাভ করে সিনেমাটি।

রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ সম্মান একুশে পদক (২০১০)সহ দেশি-বিদেশি অসংখ্য পুরস্কার-সম্মাননা পাওয়া ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দিন ইউসুফ। তার স্ত্রী মঞ্চকুসুম শিমুল ইউসুফ। একমাত্র সন্তান এষা ইউসুফও একজন সংস্কৃতিকর্মী।

বিজ্ঞাপন