চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নারী গৃহকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে রিক্রুটিং এজেন্টের প্রতি আহ্বান জেদ্দা কনস্যুলেটের

বাংলাদেশি নারী গৃহকর্মীদের সৌদি আরবে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। কিন্তু প্রতিদিনই কোন না কোন নারী গৃহকর্মীদের উপর বিভিন্নভাবে নিপীড়ন নির্যাতন চালানোর অভিযোগ আসছে সৌদি আরব বাংলাদেশ দূতাবাস ও জেদ্দা বাংলাদেশ কনস্যুলেটে।

এরই প্রেক্ষিতে নারী গৃহকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বিদেশি রিক্রুটিং এজেন্টের আহ্বান জানিয়েছে জেদ্দা কনস্যুলেট। তাদের নিরাপত্তায় জেদ্দা বাংলাদেশ কনস্যুলেটের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করা হয়েছে কনস্যুলেট থেকে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি সৌদি সরকার অনুমোদিত বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে নারী গৃহকর্মীদের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে নিয়োজিত জেদ্দায় অবস্থিত রিক্রুটিং এজেন্সি সমূহের কর্মকর্তাদের অফিস সমূহ পরিদর্শন কালে এর মালিক ও কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভায় এ আহ্বান জানান জেদ্দা বাংলাদেশ কনস্যুলেট।

বিজ্ঞাপন

জেদ্দা বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হকের নির্দেশনায় কনস্যুলেটের( শ্রম ) শাখার উদ্যোগে কাউন্সিলর মোহাম্মদ আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে প্রথম সচিব (শ্রম)মোহাম্মদ আরিফুজ্জামান সমন্বয়ে গঠিত কনস্যুলেটের টিম বিদেশি নারী গৃহকর্মীদের রিক্রুটিং এজেন্সির সঙ্গে আলোচনাকালে এই আহ্বান জানানো হয়।

কনসুলেট নেতৃবৃন্দ আশা করেন, এজেন্সি সমূহ তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করবে। নির্যাতিত গৃহকর্মীদের সহায়তার লক্ষ্যে এজেন্সি সমূহ অবশ্যই আইনি সহায়তা প্রদান করবে। যে সব এজেন্সি এসব দায়িত্ব যথাযথ পালন করতে ব্যর্থ হবে, সেই সব এজেন্সির বিরুদ্ধে কনস্যুলেটের পক্ষ থেকে কালো তালিকাভুক্তসহ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে সৌদি সরকারকে অনুরোধ জানানো হবে বলে এজেন্সি সমূহের মালিকদের সতর্ক করা হয়।

আলোচনাকালে এজেন্সি সমূহের পক্ষ থেকে বাংলাদেশী কর্মীদের যথাযথ কর্মসংস্থান নিরাপত্তা বিধান এবং নির্যাতিত-নিপীড়িত নারী গৃহকর্মীদের যেকোনো আইনি সহায়তা প্রদানের জন্য স্থানীয় এজেন্সি দের পক্ষ থেকে প্রসিকিউটর নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে বলে জানানো হয়। এসব প্রসিকিউটরগণ যে কোনো নারী গৃহকর্মীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে লিগ্যাল নোটিশ সহ আইনি সহায়তা প্রদানে সর্বদা সচেষ্ট রয়েছে বলে কনসুলেট কর্মকর্তাদের জানানো হয়।