চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নারীর অধিকার রক্ষার প্রতিশ্রুতি উরসুলা ভনডের

নারীর অধিকার রক্ষার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ইউরোপীয় কমিশনের প্রথম মহিলা সভাপতি উরসুলা ভনডের লিয়েন।

সম্প্রতি তুরস্কের এক সম্মেলনে গিয়ে পুরুষ সহকর্মীরা চেয়ারে বসে থাকলেও তাকে দেখা গিয়েছিল দাঁড়িয়ে থাকতে। লিঙ্গ বৈষম্য এমন ঘটনাতে বেশ অস্বস্তিতে পরতে হয়েছে উরসুলা ভনকে। বিষয়টি সোশ্যাল মিডিয়াতেও ছড়িয়ে পড়লে তীব্র নিন্দা শুরু হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

তবে সোমবার ইউরোপীয় সংসদে দেওয়া এক ভাষণে মিসেস ভনডের বলেছেন, যৌনতাবাদ বসার ভ্রান্তির মূলে ছিল, ‘সোফাগেট’।

বিজ্ঞাপন

তিনি জানিয়েছেন, আমার সাথে এমন আচরণ করার কোন কারণই আমি দেখি না। সুতরাং, আমাকে এই সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে হবে যে, আমি একজন মহিলা বলেই এটি হয়েছিল।

গত ৭ এপ্রিল উরসুলা তুরস্কে গিয়েছেন। তার সঙ্গে ছিলেন ইউরোপীয় কাউন্সিলের সভাপতি চার্লস মাইকেল। তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা ছিল তুরস্কের প্রেসিডেন্ট তায়ইপ এরদোগানের। সেইমতো তারা তিনজন বৈঠকের জন্য হলঘরে প্রবেশও করেন। তারপরই দেখা গেল বিপত্তি। ফাঁকা দুই চেয়ারে বসে পড়েন বৈঠকের দুই পুরুষ সদস্য। মাঝখানে হতভম্ব হয়ে দাঁড়িয়ে থাকেন উরসুলা। পরে অবশ্য দেখা যায়, তাকে একটি সোফা দেওয়া হয়েছে।

কেন এভাবে বৈঠকে তিনটির জায়গায় দু’টি চেয়ার রাখা হল তা নিয়ে বিতর্ক চরমে উঠেছে।

ইউরোপীয় কমিশন এমন ঘটনায় নিন্দায় মুখর হলেও এখনও এবিষয়ে কোনও মন্তব্য করা থেকে বিরত থেকেছে তুরস্ক।