চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নারায়ণগঞ্জে পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা

আটক ৩

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে পাঁচ বছর বয়সের একটি শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ স্থানীয় তিন মাদকসেবীকে আটক করেছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার সাতগ্রাম ইউনিয়নের পুরিন্দা বড়বাড়ি এলাকায় এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

স্থানীয়রা জানান, ফল বিক্রেতা রমজান আলীর একমাত্র কন্যা লিজা আক্তার বৃহস্পতিবার সকাল দশটার সময় বাড়ির সামনে খেলা করছিল। এসময় এলাকার কয়েকজন চিহ্নিত মাদকসেবী শিশুটিকে আইসক্রীম খাওয়ানোর কথা বলে সেখান থেকে ডেকে নিয়ে নান্নু মিয়ার বাড়িতে তাদের ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। এরপর থেকে শিশুটি নিখোঁজ থাকে। পরে শিশুটিকে না পেয়ে তার মা সাবিনা বেগমসহ নিকট আত্মীয়-স্বজনরাসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেন। দুপুর দুইটার সময় নান্নু মিয়ার বাড়ির ভাড়াটেদের তালাবদ্ধ ঘরের জানালা দিয়ে খাটের নীচে কাঁথা মোড়ানো অবস্থায় একটি শিশুর রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসি থানা পুলিশকে জানায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশু লিজার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে।

এসময় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসি সামাদ, শিমুল ও সোহেল নামের তিন মাদকসেবীকে আটক করে গণপিটুনি দিলে পুলিশ তাদের আটক করে।

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, শিশুটিকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় আটককৃতদের আসামি করে মামলার প্রক্রিয়া চলছে এবং আর কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।