চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নাইন ইলেভেনের হামলা থেকে যেভাবে বেঁচে গিয়েছিলেন মাইকেল জ্যাকসন

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের টুইন টাওয়ারে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় মৃত্যু হতে পারতো পপ তারকা মাইকেল জ্যাকসনেরও। কিন্তু সেই যাত্রায় বেঁচে গিয়েছিলেন পপ তারকা।

মাইকেল জ্যাকসনের মায়ের লেখা বায়োগ্রাফিতে বলা হয়েছে, নাইন ইলেভেনের হামলার শিকার হতে পারতেন পপসম্রাটও। সেদিন মাইকেল জ্যাকসনের একটি অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছিল টুইন টাওয়ারে। কিন্তু ঘুম থেকে উঠতে না পারায় টুইন টাওয়ারে যাওয়া হয়নি তার।

এই প্রসঙ্গে মাইকেল জ্যাকসনের ভাই জেরমাইন জ্যাকসনের বায়োগ্রাফি ‘ইউ আর নট অ্যালোন: মাইকেল: থ্রু অ্যা ব্রাদার’স আই’-এ লেখা হয়েছে, ‘আমরা কেউই জানতাম না যে সেদিন সকালে তার টুইন টাওয়ারের একটি টপ ফ্লোরে মিটিং ছিল।’

বিজ্ঞাপন

জেরমাইন জ্যাকসনের লেখা বায়োগ্রাফিতে আরও জানা গেছে, ঘটনার আগের দিন রাতে মায়ের সাথে দীর্ঘসময় গল্প করেছেন মাইকেল জ্যাকসন। ঘুমাতে দেরী হয়ে যাওয়ায় ঘুম থেকে উঠতেও দেরী হয়েছিল। পরে মাকে ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন মাইকেল। বলেছিলেন, ‘আমাকে জাগিয়ে রেখেছিলে বলেই বেশি ঘুমিয়েছি এবং অ্যাপয়েন্টমেন্ট মিস করেছি।’

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর টুইন টাওয়ারে ইতিহাসের বিভীষিকাময় আত্মঘাতী বিমান হামলা চালায় জঙ্গি গোষ্ঠী আল কায়েদা। গুঁড়িয়ে যায় ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের ভবন দু’টি। ওই হামলায় নিহত হয় প্রায় ৩ হাজার মানুষ। এরপর থেকে বিশ্বব্যাপী যুক্তরাষ্ট্রর নেতৃত্বাধীন সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান শুরু হয়।

২০০৯ সালে অতিরিক্ত মাত্রায় শক্তিশালী ব্যথানাশক প্রোপোফল সেবনের কারণে হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু হয় সঙ্গীত জগতের কিংবদন্তি মাইকেল জ্যাকসনের। কইমই

বিজ্ঞাপন