চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নতুন করে প্রেমে মজতে চায় নেইমার ও পিএসজি

গত দুই মৌসুমের সম্পর্কে এতটাই তিক্ততা ঢুকে গেছে যে পিএসজিকে ভালোবাসতে প্রায় ভুলে যেতেই বসেছেন নেইমার। তাই তো ফিরে যেতে চান পুরনো সংসার বার্সেলোনাতে। অন্যদিকে রিয়াল মাদ্রিদও ওঁত পেতে বসে আছে। কিন্তু ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডকে নিজেদের উঠানে আনার জন্য এই দুই ক্লাব যা দাম হাঁকছে তাতে মন ভরছে না প্যারিসের ক্লাবটির। আবার নেইমার কিংবা পিএসজিও চাচ্ছে না একে অপরের ছায়া মাড়াতে। তাহলে উপায়?

সংসারে অশান্তি হলে যা হয় আর কি! হয় বিচ্ছেদ, নয় ভুল বোঝাবুঝি মিটিয়ে নতুন করে শুরু করা। নেইমার-পিএসজির ক্ষেত্রেও যেন সেই সূত্রই কমন পড়ে যাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

বিচ্ছেদের ব্যাপারে নেইমারের ভাবনা এখন ওপেন সিক্রেট। আর কী পরিমাণ দাম পেলে তাকে চলে যেতে দেবে পিএসজি সেটাও ভালা জানা বার্সা-রিয়ালের। কিন্তু এরপরও পরিস্থিতি দিনকে দিন উত্তপ্ত হচ্ছেই। নতুন করে একেকটি নাটকের পাণ্ডুলিপি পড়ছেন যেন নেইমার ভক্তরা। কিন্তু নাটক যেন থামছেই না!

বিজ্ঞাপন

আবার সময়ের এসব ভাবতে বয়েই গেছে! একটু একটু করে সে জানান দিচ্ছে যা করার করতে হবে ২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে। সেই রাতেই বন্ধ হয়ে যাবে দলবদলের দরজা। এরমধ্যে দল না পাল্টালে নেইমারকে নিজেদের দলে রাখা ছাড়া উপায় নেই পিএসজির । আর তখন পুরোপুরি না হলেও খানিকটা বাধ্যগত খেলোয়াড় হয়ে ক্লাবের সেবা করে যেতে হবে বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলারের।

পরিস্থিতি যখন ঘোলা হচ্ছেই তখন তা থেকে বেড়িয়ে আসতে হলে যা করার করতে হবে নেইমার কিংবা পিএসজিকেই। দু’পক্ষের ঘোলা মাথাও যেন প্রবল চাপে কিছুটা পরিষ্কার হচ্ছে। অতীতে তিক্তটা ভুলে তাই শান্তির সাদা পতাকা উড়াচ্ছেন ব্রাজিলিয়ান তারকা ও তার ক্লাব। দুই দিক থেকেই শান্তির বার্তা ছড়িয়ে বলা হচ্ছে ‘আর নয় যুদ্ধ, এবার থামা যাক’! ফরাসি পত্রিকা লে’কিপ বলছে এমনটাই।

শান্তি যে ফিরছে তার খানিকটা ধারণাও পাওয়া যাচ্ছে। শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় তুলজের মুখোমুখি হবে পিএসজি। লে’কিপ বলছে সেই ম্যাচ দিয়ে নতুন মৌসুম শুরু করতে পারেন নেইমার। শুধু যে শুরু তাও কিন্তু নয়, এই ম্যাচে যদি নামেন তাহলে প্যারিসের জনগণকে নেইমার জানানও দিতে পারলেন ‘আমি আপনাদেরই আছি’!

Bellow Post-Green View