চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ধ্বংসস্তূপের মাঝে দাঁড়িয়ে দেব বললেন ‘শিগগির দেখা হচ্ছে বাংলাদেশ’

স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে আসছে বছর ঈদুল ফিতরে মুক্তি পাবে দেব অভিনীত ‘কমান্ডো’

সন্ত্রাসবাদী হামলায় বিধ্বস্ত শহর। রাজপথের চারদিকে আগুন জ্বলছে। পুড়ছে গাড়ি, উঁচু ইমরাত, মাটিতে বিছানো লাশ…! আর এই ধ্বংসস্তূপের মাঝে বুক চিতিয়ে দাঁড়িয়ে কমান্ডো স্টাইলে দাঁড়িয়ে আছেন দেব। ক্যাপশনে লিখলেন, ‘কলকাতার শিডিউল শেষ হল, শিগগির দেখা হচ্ছে বাংলাদেশ’।

পশ্চিমবঙ্গের নায়ক ও ঘাটালের সাংসদ দেবের ‘কেলোর কীর্তি’, ‘চ্যাম্প’, ‘পাসওয়ার্ড’সহ একাধিক ছবি সাফটার মাধ্যমে বাংলাদেশে মুক্তি পেলেও প্রথমবারের মতো তিনি এদেশের ছবি ‘কমান্ডো’তে কাজ করছেন। মূলত সেই স্থিরচিত্রটি ‘কমান্ডো’ ছবির।

বিজ্ঞাপন

শামীম আহমেদ রনির পরিচালনায় এ ছবির শুটিং চলছে পশ্চিমবঙ্গের মেদিনীপুরে। ইতোমধ্যেই ৫০ শতাংশ শুটিং হয়েছে বলে জানান নির্মাতা।

শুক্রবার বিকেলে কলকাতা থেকে মুঠোফোনে চ্যানেল আই অনলাইনের সঙ্গে আলাপ করেন ‘বসগিরি’ খ্যাত পরিচালক শামীম আহমেদ রনি। তিনি জানালেন, মেদিনীপুরে দ্বিতীয় লটে দেবকে নিয়ে ছয়দিন শুটিং করেছেন। পরিচালক রনি বলেন, ৩৭০ জনের ইউনিট নিয়ে শুটিং করেছি। প্রত্যেকের করোনা টেস্ট নেগেটিভ রিপোর্ট ও হেলথ ইন্সুরেন্স নিয়ে শুটিং করতে হয়েছে।

বৃহস্পতিবার শুটিং চলাকালে দেব তার ইনস্টাগ্রাম ও ফ্যান পেজে একটি স্থিরচিত্র পোস্ট করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, দালানে আগুনের কুন্ডুলি, সবুজ কাপড়ে আরবি হরফ লেখা। তার সামনে গাড়ি ও টায়ারে জ্বলছে আগুন, পড়ে আছে মৃতদেহ। অ্যাকশন মুডে দাঁড়িয়ে আছেন দেব। তার অভিব্যক্তি বলছে, তিনি দুশমন দমনের মিশনে সফল হয়েছেন। কোন বার্তা দিলেন আসলে?

এমন প্রশ্নে শামীম আহমেদ রনি বলেন, শুটিং সেট থেকে ছবিটা তোলা হয়েছে। এটা কোনো অফিশিয়াল লুক না। ছবিতে কোনো গ্রাফিক্স করা নেই। তিনি বলেন, ছবিতে যেটা দেখা যাচ্ছে সেটা সেট বানিয়ে করা হয়েছে। ছয়দিন এখানে শুটিং করেছি। দেব দা ছাড়াও বাংলাদেশের মাজনুন মিজান শুটিং করেছেন। এছাড়া কলকাতার শান্তিনাল, রজত ব্যানার্জিসহ আড়াই শ আর্টিস্ট শুটিং করেছেন। অ্যাকশন ও ফাইট দৃশ্যের জন্য চেন্নাইয়ের বিখ্যাত রকি মাস্টার কাজ করেছেন। সুন্দরভাবে শুটিং হয়েছে।

করোনার আগে কলকাতায় শুরু হয়েছিল শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত ‘কমান্ডো’ ছবির শুটিং। তখন দেবের সঙ্গে প্রথম লটে শুটিং করেছিলেন ছবির নায়িকা বাংলাদেশের জাহারা মিতু। পরিচালক জানান, ১ জানুয়ারি থেকে বাংলাদেশে শুটিং করবেন দেব। তৃতীয় লটে নায়িকা অংশ নেবেন। ১৬ জানুয়ারি থেকে শেষ লটের শুটিং হবে দুবাইতে। সেখানেই ক্যামেরা ক্লোজ হবে।

২০২১ সাল হচ্ছে বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার ৫০ বছরপূর্তি। এ উপলক্ষে ছবিটি মুক্তি পাবে বলে জানান শামীম আহমেদ রনি। তিনি বলেন, কমান্ডো একটি মিশন ভিত্তিক ছবি। দেশের জন্য জীবন বাজি রেখে একটি মিশন পরিচালনায় দায়িত্ব নেন নায়ক। সেই চরিত্রে দেব দা। স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে কমান্ডো মুক্তি দেয়া হবে। মুক্তি টার্গেট ২০২১ এর ঈদুল ফিতর।