চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ধর্ষণ প্রতিরোধে কমিশন গঠনে হাইকোর্টের আদেশকে স্বাগত জানিয়েছে এমজেএফ

সারাদেশে নারী ও শিশু ধর্ষণের ঘটনার বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে একাধিক রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে ১৯ জানুয়ারি রোববার উচ্চ আদালতের দুইটি বেঞ্চের আদেশকে ‘যুগান্তকারী’ আখ্যা দিয়ে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ) আশা প্রকাশ করেছে যে আদালতের আদেশ প্রতিপালনের জন্য যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে সরকার দেশে ধর্ষণের হার নিয়ন্ত্রণে আরো মনোযোগী হবে।

সোমবার এক বিবৃতিতে এমজেএফের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম এ তথ্য জানান।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ধর্ষণ প্রতিরোধে ও ক্ষতিগ্রস্ত নারী ও শিশুকে সহায়তা দিতে কমিশন গঠন এবং ‘ধর্ষণ-প্রতিরোধী সিকিউরিটি এলার্ম যন্ত্র প্রবর্তনে উচ্চ আদালতের দুইটি বেঞ্চের একাধিক আদেশ একটি যুগান্তকারী ও সময়োপযোগী পদক্ষেপ। এমজেএফ ও তার সহযোগী এনজিওসহ অনেক নারী সংগঠন দেশে নারী ও শিশু ধর্ষণ আশংকাজনকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় কার্যকর আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দীর্ঘদিন ধরেই সরকারের কাছে জোর দাবি জানিয়ে আসছিল। শিশু ধর্ষণ প্রতিরোধে এমজেএফের উদ্যোগে সম্প্রতি ঢাকায় পাঁচটি শিশু সুরক্ষা কমিটিও গঠিত হয়েছে।

এমজেএফ আশা প্রকাশ করে যে, মহামারীর আকারে সারাদেশে ধর্ষণের বিস্তারের কারণে জনমনে নারী ও শিশুর নিরাপত্তার ব্যাপারে বিরাজমান আতংক নিরসনে সরকার উচ্চ আদালতের আদেশ প্রতিপালনে আরো তৎপর ও উদ্যোগী হবে। একইসাথে, নারী ও শিশু ধর্ষণের ঘটনা প্রতিরোধের অন্যথা হলে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশ পিছিয়ে পড়বে বলে এমজেএফ আশঙ্কা প্রকাশ করেছে।