চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ধর্মের নামে আর খুন করতে দেওয়া হবে না: প্রধানমন্ত্রী

উগ্র মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম, ধর্মের নামে ব্লগার হত্যা ইসলাম সমর্থন করে না। এর সঙ্গে জড়িতদের কাউকেই রেহাই দেওয়া হবে না। ধর্মের নামে বাংলাদেশে আর মানুষ খুন হতে দেওয়া হবে না।

শনিবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধুর সহধর্মীণী বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৮৫তম জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানের তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, মুসলমান হয়ে যারা মুসলমানদের খুন করবে এরা কেমন মুসলমান। এটা চলতে দেওয়া যাবে না। কারণ বাংলাদেশের মানুষ শান্তিপ্রিয়, বাংলাদেশের মানুষ কোনো রক্তপাত চায় না। আর মানুষকে এমন অশান্তি দিয়ে এসব কাজ এই বাংলার মাটিতে করতে দেওয়া হবে না। এদেশে এমনটা হতে দেওয়া যাবে না।

সারাদেশের শিশু হত্যার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি মন্ত্রীদের সঙ্গে মিটিং করেছি। আমি বলেছি যারা শিশু নির্যাতন করে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়া হবে। আমরা এ ব্যাপারে বসে নেই। কিন্তু বাবা-মা হয়েও কি করে শিশু হত্যা করতে পারে আমি চিন্তা করে পাই না।

বিজ্ঞাপন

শেখ হাসিনা বলেন, দেশে আজ শিশু হত্যার ঘটনা ঘটছে, যার শুরু হয়েছিলো ৭৫ এর ১৫ আগস্টে শিশু রাসেলসহ বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার মধ্যে দিয়ে। ওই হত্যার বিচারহীনতাই এসব হত্যাকে উৎসাহিত করেছে।

‘এ বাংলাদেশ অসম্প্রদায়িক এখানে কেউ অপরাধ করে পার পাবে না। শান্তি প্রিয় এ দেশে অশান্তিকারীদের ছাড় দেওয়া হবে না,’ বলেন তিনি।

১৫ আগষ্ট নিজের বেঁচে থাকার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ১৫ আগষ্ট হত্যাকাণ্ডের ১৫ দিন আগে আমি বিদেশ চলে যাই। এ জন্য আমি বেঁচে ছিলাম। আমি যাওয়ার সময় আমার মা বেগম ফজিলাতুন্নেছা অনেক কেঁদেছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের পরিবারের যারা ১৫ আগষ্ট শাহাদৎ বরণ করেছিলেন তারা কেউ ঘাতকের কাছে ক্ষমা চাননি।

Bellow Post-Green View