চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দ্বিতীয় দিন টিকা নিলেন ৪৬ হাজার ৫০৯ জন

সারা দেশে করোনা টিকাদানের দ্বিতীয় দিনে আজ ৪৬,৫০৯ জন টিকা নিয়েছেন।

যার মধ্যে ৩৫ হাজার ৮৪৩ জন পুরুষ এবং ১০ হাজার ৬৬৬ জন নারী। সব মিলিয়ে দুই দিনে টিকা নিয়েছেন ৭৭ হাজার ৬৬৯ জন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সোমবার সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (এমআইএস) অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমানের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

টিকাদানের দ্বিতীয় দিনে রাজধানীতে টিকা নিয়েছেন সাত হাজার ১৭৮ জন। এরমধ্যে ৫ হাজার ২০১ এক জন পুরুষ এবং ১৯৭৭ জন নারী। এ নিয়ে রাজধানীতে মোট টিকা নিলেন ১২ হাজার ২৪৯ জন।

টিকাদানের দ্বিতীয় দিন সোমবার বঙ্গবন্ধু শেখ মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে টিকা নেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা। এ সময় সিইসি বলেন, আসলেই উৎসবমুখর পরিবেশ। আমার খুব ভালো লেগেছে। আধা ঘণ্টা অবজারভেশনে ছিলাম। টিকা নিয়ে আমার কোনোরকম অসুবিধা হয়নি। আমি ভোটারদের অনুরোধ করব, আপনারা প্রত্যেকে যার যার এলাকায় এই টিকা গ্রহণ করুন।

বিজ্ঞাপন

সকালে শ্যামলীর ২৫০ শয্যার টিবি হাসপাতালে টিকা নেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। এ সময় খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুমও করোনাভাইরাসের টিকা নেন।

বিএসএমএমইউতে টিকা নেন স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত ৮৪ বছর বয়সী চিকিৎসক ডা. টি এ চৌধুরী। স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সংগীত শিল্পী রফিকুল আলম ও তার স্ত্রী আবিদা সুলতানাও এদিন টিকা নেন।

আরও টিকা নেন মানবজমিন পত্রিকার প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান এবং তার স্ত্রী মাহবুবা চৌধুরী।

গত ২৭ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে করোনাভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। সে সময় দুই দিনে মোট ৫৬৭ জনকে টিকা দেওয়া হয়।

বাংলাদেশে এই টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ না হওয়ায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রটোকল অনুযায়ী তাদের এক সপ্তাহ পর্যবেক্ষণ করা হয়। কারও মধ্যে গুরুতর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা না দেওয়ায় পরিকল্পনা মত রোববার গণটিকাদান শুরু হয়।