চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দ্বিতীয় দিনে অনশন, ৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ

ফাঁস হওয়া প্রশ্নে নেওয়া পরীক্ষা বাতিল করে পুনরায় ভর্তি পরীক্ষার দাবিতে আমরণ অনশনে বসা মেডিকেল কলেজে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের অনশন চলছে। বুধবার থেকে শুরু হওয়া অনশন বৃহস্পতিবারও চলছে। সারারাত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের মূল বেদিতে অবস্থানের পর সকাল থেকে আবার অনশন শুরু করে ভর্তিচ্ছুরা।

অনশনে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থী নিয়ন চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, আমরা সারারাত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের মূল বেদিতে অবস্থান নিয়েছি। আজও অনশন চালিয়ে যাবো।

তিনি জানান, গত রাতে প্রায় ৭০ জন শিক্ষার্থী সেখানে অবস্থান করেন। তাদের সঙ্গে অভিভাবকরাও ছিলেন। এরই মধ্যে সেখানে তিনজন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

অনশনে থাকা একজন অভিভাবক অধ্যক্ষ আশরাফ কামাল বলেন, সমগ্র জাতিকে মেধা শূন্য করার জন্য পরীক্ষার ৯ ঘণ্টা আগে তাণ্ডব চালানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরো বলেন, এরমধ্যেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে বলা হয়েছে ২০২২ সালের পর বাংলাদেশ থেকে কোনো ডাক্তার নেওয়া হবে না। আর যারা ২০১৫ সালের ফাঁসকৃত প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়ে মেডিকেলে ভর্তি হয়েছেন তাদের কোনো চাকরি দেবে না স্কয়ার হাসপাতাল।

আশরাফ কামাল প্রধানমন্ত্রীকে উদেশ্যে বলেন, ১৬ কোটি মানুষ আপনার দিকে তাকিয়ে আছে একটি সমাধানের জন্য। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি একটা স্বাধীন তদন্ত কমিটি গঠন করুন।

বুধবার সকাল সোয়া ১১ টা থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অনশনে বসেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের অনশন কর্মসূচিকে সমর্থন করতে শহীদ মিনারে জড়ো হন তাদের অভিভাবকরা।

১৮ সেপ্টেম্বর মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার একদিন পর থেকেই প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ তুলে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছে।

বিজ্ঞাপন