চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দেড় কোটি ডলারের বিদেশি বিনিয়োগে আরও বিস্তৃত হতে চায় সহজ

সিঙ্গাপুরভিত্তিক প্রতিষ্ঠান গোল্ডেন গেট ভেঞ্চারের কাছ থেকে পর্যায়ক্রমে বিনিয়োগ হিসেবে ১৫ মিলিয়ন বা দেড় কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ পাওয়ার কথা আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে সহজ। নতুন এই মূলধন নিজেদের গ্রাহক অর্জন ও রাইড শেয়ারিং ব্যবসার বিস্তৃতিতে কাজে লাগাবে দেশের অনলাইন রাইড শেয়ারিং ও টিকেটিং প্ল্যাটফর্মে পরিচিত প্রতিষ্ঠানটি।

আজ রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে সহজ গণমাধ্যমের কাছে তাদের নতুন বিনিয়োগকারীদের পরিচয় করিয়ে দেয়, একই সঙ্গে রাইড শেয়ারিং সার্ভিসে গাড়ি সেবা চালু করারও ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি।

দৈনন্দিন যাতায়াতে রাজধানী ঢাকার যানজট থেকে মুক্তি পেতে গ্রাহকদের জন্য অ্যাপের মাধ্যমে গাড়ি ও মোটরবাইক বুকিং রাইড শেয়ারিং-এর সেবা দিচ্ছে সহজ। পাশাপাশি দূরপাল্লার বাস, ফেরির টিকিট থেকে শুরু করে সিনেমার টিকিটও বুকিং দেয়া যাচ্ছে সহজের ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপে।

গ্রাহকদের চাহিদা মোতাবেক রাইড শেয়ারিং সার্ভিস, বাস ও সিনেমার টিকিটসহ সকল সুবিধা স্মার্টফোনের ‘সুপার অ্যাপ’-এর মাধ্যমে ডিজাইন করার পরিকল্পনা নিয়েছে সহজ।

বিজ্ঞাপন

সংবাদ সম্মেলনে সহজের প্রধান নির্বাহী মালিহা কাদির বলেন, আমাদের স্লোগান হচ্ছে ‘জীবনটাকে সহজ করুন’। ২০১৪ সালে আমরা যাত্রা শুরু করেছিলাম ‘সহজ’ নামটি দিয়ে, শুধু সহজ টিকিট কিংবা সহজ বাস এই নামে নয়। ‘সহজ’ নামটি বেছে নেয়ার কারণ হলো আমার স্বপ্ন ছিলো সহজ বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ও সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন সেবাক্ষেত্র হবে। যেখানে মানুষের নিত্যদিনের সমস্ত সেবা দেবো আমরা। একেবারে শুরুতে আমরা টিকিট সেবা নিয়ে আসি এবং এ বছর আমরা রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নিয়ে আসার পর এখন আমরা ‘সুপার অ্যাপ’ পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সহজ দেশি-বিদেশি অভিজ্ঞ বিনিয়োগকারীদের সমর্থন পাচ্ছে এবং মনে করি এটি খুব শিগগিরই আমাদের লক্ষ্য অর্জনে সহায়তা করবে।’

সহজে আসা এই বিশাল অঙ্কের বিনিয়োগকে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের প্রযুক্তিখাতে সবচেয়ে বড় বিদেশি বিনিয়োগ বলে জানান প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী।

সহজে বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান গোল্ডেন গেট ভেঞ্চারের অংশীদার জাস্টিন হল বলেন, ‘বাংলাদেশের গ্রাহক সেবা ও পরিবহন খাতে যুগান্তকারী প্ল্যাটফর্মের অংশ হিসেবে মালিহা ও তার দলে সম্পৃক্ত হতে পেরে আমরা সম্মানিত। উন্নয়নের রূপরেখায় বাংলাদেশের সম্ভাবনা প্রসারিত। শহুরে জনসংখ্যার ঘনত্বের তুলনায় এখানকার গ্রাহক সেবায় ডিজিটাল প্রবৃদ্ধি, গ্রাহকদের ক্রয় ক্ষমতা বৃদ্ধি পাওয়া নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবিদার। গ্রাহকের সার্বিক অবস্থা বিবেচনায় আমি মনে করি সহজের ব্যবসা প্রসারের পরিকল্পনা সঠিক সময়ে উপযুক্ত সিদ্ধান্ত।’

বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘বৈদেশিক সরাসরি বিনিয়োগের হার গত তিন বছরে তিনগুণ বেড়েছে। ভেঞ্চার ক্যাপিটাল বিনিয়োগের ক্ষেত্রে এটাই এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ।’

২০১৪ সালে যাত্রা শুরু করা সহজ বর্তমানে প্রযুক্তি, পরিচালনা ও বিপণন মিলিয়ে সরাসরি ২শ’র বেশি মানুষের কর্মসংস্থানের কেন্দ্র। এই স্টার্টআপটির নতুন বিনিয়োগকারী হিসেবে যুক্ত হয়েছে সিঙ্গাপুর ও চীনের গোল্ডেন গেইট ভেঞ্চারস, ফাইভ হান্ড্রেড স্টার্টআপস, লিনিয়ার ভেঞ্চার ক্যাপিটাল এবং এশিয়ান অ্যাঞ্জেল ইনভেস্টরস কু বুন হিউই।

বিজ্ঞাপন