চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দেশে ৪৮ বিলিয়ন ডলারের রেকর্ড রিজার্ভ

ক‌রোনা মহামারির মধ্যেই রেকর্ড গড়‌েছে বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয়ন বা রিজার্ভের পরিমাণ। এবার এক লাফে ৪৮ বিলিয়ন (৪ হাজার ৮০০ কোটি) ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করেছে।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এদিন দেশের রিজার্ভের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪৮ দশমিক শূন্য ৪ বিলিয়ন ডলার। এই অংক অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি। এই রিজার্ভ দিয়ে প্রতি মাসে ৬ বিলিয়ন ডলার হিসেবে ৮ মাসের আমদানি ব্যয় মেটানো সম্ভব।

মূলত প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের ওপর ভর করেই বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ বাড়ছে।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যে দেখা যায়, চলতি আগস্ট মাসের ২৩ দিনে (১ থেকে ২৩ আগস্ট) প্রবাসীরা ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন।

তবে এবার রেমিট্যান্সের সাথে যোগ হলো আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ১ দশমিক ৪৫ বিলিয়ন ডলারের ঋণ-সহায়তা। আন্তর্জাতিক এই সহায়তা যোগ হওয়ায় ৪৮ বিলিয়ন ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করেছে দেশের রিজার্ভ।

হঠাৎ রিজার্ভ বাড়ার বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, করোনা মহামারিতেও প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের ইতিবাচক ধারা অব্যাহত রয়েছে। তবে সবচেয়ে বড় প্রভাব রেখেছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ঋণ সহায়তা। করোনার কারণে সংস্থাটি ১ দশমিক ৪৫ বিলিয়ন ডলারের ঋণ-সহায়তা ছাড় করেছে বাংলাদেশকে। এ কারণে দেশের রিজার্ভ এই নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে।

গত জুনে প্রথমবারের মত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ ৪৬ বিলিয়ন ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করেছিল।

ওই সময় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছিলেন, ২০২১ সাল শেষ হওয়ার আগেই দেশের রিজার্ভ ৫০ বিলিয়ন ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করবে।

বিজ্ঞাপন