চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দেশে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা তৈরিতে ভূমিকা রাখছে ই-কমার্স

ই-কমার্স বিশ্বব্যাপী মানুষের জীবনধারায় ঘটিয়েছে যুগান্তকারী পরিবর্তন। বাংলাদেশে ই-কমার্সের যাত্রা খুব দীর্ঘ না হলেও এর প্রসার ঘটতে খুব বেশি সময় লাগেনি। ইতোমধ্যে এর সুফল ভোগ করছে বড় শহর থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষও।

মুঠোফোনের সহজলভ্যতা, নেটওয়ার্কের বিস্তৃতি আর দেশের লজিস্টিক খাতের ক্রমশ উন্নতি ই-কমার্সকে মানুষের জীবনযাপনের অংশে পরিণত করেছে।

ই-কমার্সের যাত্রার শুরুর দিকে ঘড়ি, ইলেকট্রনিক গ্যাজেটের মতো সৌখিন পণ্য মানুষ অনলাইনে কিনলেও, এখন নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীও মানুষ অনলাইনে অবাধে কিনছে।

ই-কমার্স মার্কেটপ্লেসে দৈনিক বাজারসদাই, প্রয়োজনীয় ঔষধপত্র থেকে শুরু করে বাড়ির আসবাব, বইখাতা, মোবাইল-ফোন ও অন্যান্য ইলেকট্রনিক্স পণ্য এমনকি গাড়ি-মোটরসাইকেলও পাওয়া যাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

শুধু কেনাকাটাই নয়, ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম দেশে ক্ষুদ্র এবং মাঝারী উদ্যোক্তা তৈরিতেও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখছে । অঞ্চলভিত্তিক জনপ্রিয় পণ্য নিয়ে সেই অঞ্চলের অনেককেই এখন বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে ব্যবসা করতে দেখা যায়, যেখানে দেশের এক প্রান্তের পন্য অনায়সে পৌঁছে যাচ্ছে আরেক প্রান্তে।

করোনা প্রাদুর্ভাবের পর ঘরবন্দি মানুষকে যাবতীয় কেনাকাটার জন্য নির্ভর করতে হয়েছে ই-কমার্সের ওপর। যারা আগে কখনো অনলাইনে কেনাকাটা করেননি, তাদের অনেকেই এসময় স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে অনলাইনে কেনাকাটা শুরু করেন এবং এখন দেশের বিশাল অংশের মানুষের জন্য অনলাইন কেনাকাটা অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। আর দেশের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোও নিজেদের সর্বোচ্চ দিয়ে লকডাউনের প্রতিকূল সময়ে মানুষের চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম হয়েছে।

গণমাধ্যমের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, কোভিড-১৯ প্রকোপের পর ২০২০ সালে অনলাইনে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর কেনাবেচা বেড়েছিল ৩০০ শতাংশ। সব মিলিয়ে, করোনা বৈশ্বিক মহামারি বিভিন্ন খাতে নেতিবাচক প্রভাব ফেললেও ই-কমার্স খাতের রূপান্তর ও অগ্রগতিতে ইতিবাচক ভূমিকা রেখেছে বলা যায়।

ক্রেতাদের আস্থা ও সন্তুষ্টি অর্জনের মাধ্যমে ই-কমার্সের প্রবৃদ্ধি হচ্ছে আকাশছোঁয়া। ই-কমার্সে ক্রেতার সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলার ফলে অনেক অফলাইন বিক্রেতাও এখন অনলাইনে ব্যবসা কার্যক্রম চালু করেছে। আর তা করতে তাদের কোনও বাড়তি ঝামেলা পোহাতেই হচ্ছেনা, কেননা তাদের হয়ে তাদের পন্য নিজেরাই নিজেদের ওয়েবসাইট এবং অ্যাপ এ যুক্ত করছে দারাজ। ফলে ব্যবসার পাশাপাশি দোকানের পরিচিতি ও বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এভাবে বিক্রেতাদের অনলাইনে ব্যবসা পরিচালনা সহজ করতে ও ক্রেতাদের একই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে যেকোনো ধরনের পণ্য কিনতে সহায়তা করার লক্ষ্যে কাজ করছে দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন মার্কেটপ্লেস দারাজ বাংলাদেশ। অভিনব প্রযুক্তি ও দক্ষতার সাথে দেশের ই-কমার্সের দৃশ্যপটে পরিবর্তন আনছে প্রতিষ্ঠানটি। ক্রেতা সন্তুষ্টি অর্জনে ও দেশের ই-কমার্সকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে নতুন বছরে নতুন সম্ভাবনা উন্মোচন করতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

বিজ্ঞাপন