চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দেশের সমুদ্রসীমা নিরাপত্তায় সহযোগিতা দৃঢ় করছে যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্র নৌ-বাহিনী, মেরিন কোর এবং বাংলাদেশ নৌ-বাহিনীর পরিচালনায় হতে যাওয়া ৫ম বার্ষিক কো-অপারেশন এ্যাফ্লোট রেডিনেস এন্ড ট্রেনিং (ক্যারাট) বাংলাদেশ অনুশীলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হবে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর।

নৌ-বাহিনীর ঘাটি ইশা খাঁয় এ অনুশীলন কার্যক্রম চলবে।

বিজ্ঞাপন

আগামী ৪ অক্টোবর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হওয়া ৫ দিনের ক্যারাট বাংলাদেশ-২০১৫ এর অনুশীলন সাজানো হয়েছে তীরে এবং সমুদ্রে, যৌথ সমুদ্রসীমা নিরাপত্তা অগ্রাধিকার এবং অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের নৌ-বাহিনীর মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়ন ও সহযোগিতা বৃদ্ধির ভিত্তিতে।

বিজ্ঞাপন

ক্যারাট যুক্তরাষ্ট্র নৌ-বাহিনী, যুক্তরাষ্ট্র মেরিন কোরের সঙ্গে ইতোমধ্যে যোগ হয়েছে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ৯টি দেশের সশস্ত্র বাহিনীর একটি ধারাবাহিক দ্বি-পাক্ষিক অনুশীলন।

‘বাংলাদেশ নৌ-বাহিনীর সাথে আমাদের অংশীদারিত্ব পূর্ণতা পাচ্ছে ও বৃদ্ধি পাচ্ছে।’ মন্তব্য করে টাস্ক ফোর্স (সিটিএফ) ৭৩, কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল চার্লি উইলিয়ামস বলেন, ‘এই সম্পর্ক ক্যারাটকে বিশ্বাসযোগ্য করবে যা দক্ষতা, জ্ঞান বৃদ্ধি এবং এই গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চলের সামুদ্রিক নিরাপত্তা সহযোগিতা চর্চায় সহায়তা করবে।’

২০১১ সালে শুরু হয় ক্যারাট বাংলাদেশ। এক দশকেরও বেশি সময় ধরে এটি বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে প্রথম পরিচালিত নৌ-অনুশীলন।

ক্যারাট বাংলাদেশের পর ক্যারাট ২০১৫-এর শেষ পর্ব অনুষ্ঠিত হবে নভেম্বরে ব্রুনেই ও ক্যাম্বোডিয়ায়।