চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দেশের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনাই বিএনপির বড় চ্যালেঞ্জ: মির্জা ফখরুল

৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করছে বিএনপি

দেশের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনাই বিএনপির বড় চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দলের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

মির্জা ফখরুল বলেন, আমার বিশ্বাস, সরকারের শুভ বুদ্ধির উদয় হবে এবং মিথ্যা হয়রানির মামলা থেকে বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেবে।

বিশ্ব মহামারী করোনাভাইরাসের মধ্যে দলটি সাদামাটাভাবে এবার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করছে।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আজ সকালে দলের কেন্দ্রীয় ও জেলা কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর শেরেবাংলা নগরে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে দলের নেতাকর্মীরা।  রয়েছে  ভার্চুয়াল আলোচনা সভা।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সারাদেশে দলের নেতাকর্মী, সমর্থক ও শুভানুধ্যায়ীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিজ্ঞাপন

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সপরিবারে নিহত হওয়ার পরে মেজর জেনারেল জিয়াউর রহমান সেনাপ্রধান হন ও পরবর্তী সময়ে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসেন।

১৯৭৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক দল (জাগদল) নামে একটি রাজনৈতিক প্ল্যাটফর্ম গঠিত হয়। ওই বছর ১ মে জিয়াউর রহমানকে চেয়ারম্যান করে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘জাতীয়তাবাদী ফ্রন্ট’ ঘোষণা করা হয়। ৩ জুন নির্বাচন দিয়ে ওই ‘জাতীয়তাবাদী ফ্রন্ট’ থেকে প্রার্থী হয়ে তিনি রাষ্ট্রপতি হন।

নির্বাচনের তিন মাসের মাথায় ১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর ঢাকার রমনা রেস্তোরাঁয় এক সংবাদ সম্মেলনে জিয়াউর রহমান বিএনপি প্রতিষ্ঠার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন।

এক যুগের বেশি সময় ধরে ক্ষমতার বাইরে আছে বিএনপি।  আজ পা দিলো প্রতিষ্ঠার ৪৩ বছরে। করোনাকালের পাশাপাশি এমন একটি সময় বিএনপি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করছে, যখন দলটির চেয়ারপারসন পুরোপুরি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের বাইরে। কারাদণ্ড, মামলাগত সমস্যা এবং শারীরিক অবস্থা মিলে তিনি আদৌ রাজনীতিতে আর সক্রিয় হওয়ার বিষয়ে সন্দেহ বিশেষজ্ঞদের।

অপরদিকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানও সাজাপ্রাপ্ত হয়ে বিদেশে অবস্থান করছেন। তিনি দেশে ফিরবেন কি না তারও কোনো নিশ্চয়তা নেই। এই পরিস্থিতিতে দলের যাবতীয় দিকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।