চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দেশেই ডেঙ্গু শনাক্তের কিট উৎপাদন প্রক্রিয়া শুরু: প্রধানমন্ত্রী

ডেঙ্গু শনাক্তের জন্য আবশ্যকীয় ‘কিট’ বিগত দিনে আমদানি নির্ভর থাকলেও আগামীতে দেশেই এটি পাওয়া যাবে বলে সংসদকে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন: কাঁচামাল আমদানি করে দেশেই কিট উৎপাদনের প্রক্রিয়া গত ৬ আগস্ট থেকে আমরা শুরু করেছি। এখান থেকে প্রতিদিন ৩৫ হাজার কিট পাওয়া সম্ভব হবে।

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী বলেন: আগামী দিনে ডেঙ্গু নির্ণয়ে কিটের কোনো সঙ্কট হবে না। এছাড়া ডেঙ্গু পরীক্ষায় একটি নিদৃষ্ট অর্থ নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। এর বাইরে কেউ টাকা নিতে পারবে না। কেউ নিলে সঙ্গে সঙ্গে ওই হাসপাতাল-ডায়াগনস্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

বুধবার জাতীয় সংসদের চতুর্থ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নত্তোর পর্বে অংশ নেন শেখ হাসিনা।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন: ডেঙ্গু মশা আমাদের দেশের অনেকটা এলিট শ্রেণির মতো। তারা উচ্চবৃত্তের জায়গা বেশি পছন্দ করে। সেক্ষেত্রে আমি সকলকে বলবো আমাদের নিজ নিজ জায়গা যেন আমরা পরিস্কার রাখি। কোথাও পানি জমে না থাকে। প্রতিটি জায়গা যেন পরিচ্ছন্ন থাকে সেই বিষয়ে সচেতন হতে হবে। আমরা এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছি।

মশা নিয়ন্ত্রণে সিটি কর্পোরেশনে অকার্যকর ঔষধ কেন? এমন আরে প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন: জনগণ যখন নির্বাচিত করে আমাকে সংসদে পাঠিয়েছে তখন থেকেই আমি চিন্তা করি মানুষকে কিভাবে ভালো রাখা যায়। আমি তো আর ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে দেশ চালাই না। ১২টার সময়ও ঘুম থেকে উঠি না। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হয়তো ৫ ঘণ্টা আমার ঘুমের সময়। বাকি সময়টাতে আমি দেশের মানুষের জন্য কাজ করার চেষ্টা করি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন: ঔষধ কেনা হয়েছে, দেয়াও হয়েছে। মহামারি বললেও এর থেকে বেশি হয়েছে ফিলিপিন্সে। সেখানে এক সপ্তাহের মধ্যে সেখানে ৫০০ লোক মারা গেছে, তারা ইমারজেন্সিও দিয়েছিল। আমাদের এখানে পরিস্থিতি সেই পর্যায়ে যায়নি। তবে ঔষধে কাজ হলো না কেন, এটার সঙ্গে কারা জড়িত, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Bellow Post-Green View