চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দেবের বাংলাদেশি ছবির শুটিংয়ে ‘করোনা ভাইরাস’ আতঙ্ক

কলকাতার জনপ্রিয় নায়ক দেব প্রথমবারের মতো বাংলাদেশি ছবি ‘মিশন সিক্সটিন’-এ কাজ করতে যাচ্ছেন। আগামী ৮ মার্চ থেকে এ ছবির শুটিং হওয়ার কথা থাইল্যান্ডের ব্যাংককসহ কয়েকটি শহরে। সবকিছু ঠিক থাকলেও সেখানে শুটিংয়ের আগেই ‘করোনা ভাইরাস’ আতঙ্কে ছবির পুরো টিমের মধ্যে। দেব নিজেও এ বিষয়টি নিয়ে চিন্তিত! 

‘মিশন সিক্সটিন’ পরিচালনা করবেন শামীম আহমেদ রনি। ব্যাংকক থেকে তিনি চ্যানেল আই অনলাইনকে খবরটি জানিয়ে বললেন, ১০ ফেব্রুয়ারি থাইল্যান্ড এসেছি। শুটিংয়ে লোকেশন দেখতে ১২ জনের একটি টিম কয়েকটি শহর ঘুরেছি। খোঁজ নিয়ে জেনেছি, চীনের পর ব্যাংককেও ‘করোনা’ ছড়িয়েছে। এখনও পর্যন্ত ১৩ জন মরনব্যাধি এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

মিশন সিক্সটিন টিমের যে সদস্যরা থাইল্যান্ডে আছেন, তারাও খুব সাবধানে চলাফেলা করছেন। তাই শুরু থেকে এখানে শুটিং করা যাবে কিনা বিষয়টি নিয়ে কনফিউশন কাজ করছে বলে জানান ‘বসগিরি’ ছবির এ নির্মাতা।

শামীম আহমেদ রনি বলেন, শুটিং করতে হবে থাইল্যান্ড-বাংলাদেশ দুই দেশেই। চেয়েছিলাম মার্চে থাইল্যান্ড এবং এপ্রিলে বাংলাদেশে শুটিং করতে। কিন্তু এখানে করোনা ভাইরাস ছড়াচ্ছে। আতঙ্ক কাজ করছে। শুটিং করাও রিস্ক হবে! সেজন্য আগেই হয়তো বাংলাদেশের অংশের শুটিং করতে হবে। রাতের ফ্লাইটে কলকাতা যাচ্ছি। সোমবার দুপুরে দেব দাদার সঙ্গে মিটিংয়ে বসবো। তারপর শুটিং আগে কোথায় হবে, কবে থেকে শুরু হবে সেই বিষয়টি চূড়ান্ত হবে।

বিজ্ঞাপন

গত নভেম্বরে ঢাকায় ‘মিশন সিক্সটিন’ ছবির ঘোষণা অনুষ্ঠান

ছবির গল্পের ধারণা দেন পরিচালক রনি এভাবে, সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গি দমনে সরকারি একটি ফোর্স মিশনে নামে। সেখানে বিদেশে বসে প্রতিপক্ষের পাল্টা হামলায় বাংলাদেশজুড়ে এক ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। এমন একটি গল্প নিয়ে ‘মিশন সিক্সটিন’। এর গল্প লিখেছেন পরিচালক নিজেই। সংলাপ দেলোয়ার হোসেন। শামীম আহমেদ রনি বলেন, ছবিতে দেবের নায়িকা কে থাকবেন সেটি আগামী সপ্তাহের মধ্যে চূড়ান্ত হবে।

‘মিশন সিক্সটিন’ প্রযোজনা করতে যাচ্ছে শাপলা মিডিয়া। প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার সেলিম খান কোনো যৌথ প্রযোজনা নয়, নিরেট বাংলাদেশের ছবিতে দেবকে নিয়ে প্রথমবার লগ্নি করতে যাচ্ছেন।

তিনি বললেন, ‘মিশন সিক্সটিন’-এর শুটিং নিয়ে কোনো তাড়াহুড়ো নেই। দেব নিজেও সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। আগামী ঈদুল আযহায় ছবিটি বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি চাই।

শামীম আহমেদ রনির আরেক ছবি ‘বিক্ষোভ’-এর শুটিংও শেষের দিকে। জানালেন, এক দিনের প্যাচওয়ার্ক বাকি আছে এবং একটি গানের শুটিং বাকি। ছবির অন্যতম চরিত্রে থাকা শ্রাবন্তীর পুরো কাজ শেষ হয়েছে। নায়ক শান্তর একটি গানের কাজ বাকি আছে, যেটি ব্যাংককে শুটিং করার ইচ্ছে রয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী রোজার ঈদে বিক্ষোভ মুক্তি পাবে।

বিজ্ঞাপন