চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দেখি কত দ্রুত কামব্যাক করা যায়: সাকিব

আট ম্যাচে ৫ উইকেট। ব্যাটে মাত্র ৮২ রান। পারফরম্যান্সই বলে দিচ্ছে নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন সাকিব আল হাসান। বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি কাপে জেমকন খুলনা গ্রুপ পর্ব শেষ করলেও তাদের সেরা খেলোয়াড় এখনো কক্ষপথে ফেরার লড়াইয়ে। বল হাতে কিছুটা কার্যকর হলেও ব্যাটে কিছুই করতে পারছেন না সাকিব।

বৃহস্পতিবার বেক্সিমকো ঢাকার বিপক্ষে ৮ রান করে বাজে শটে ফেরেন সাজঘর। খরা কাটিয়ে কবে অলরাউন্ড নৈপুণ্য দেখাবেন? ম্যাচ শেষে সাকিব বললেন, ‘জানি না(হাসি), দেখি কত দ্রুত কামব্যাক করা যায়। চেষ্টা থাকবে যেন ভালো করতে পারি। বাকিটা দেখা যাক।’

বিজ্ঞাপন

নিষেধাজ্ঞা শেষে বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি কাপ দিয়ে মাঠের খেলায় ফিরেছেন সাকিব। বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে যে ঝলক দেখিয়েছিলেন, তার ছিটেফোঁটাও দেখা যাচ্ছে না। অবশ্য হতাশাজনক পারফরম্যান্স নিয়ে খুব বেশি কথা বলেননি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

বিজ্ঞাপন

ঢাকার বিপক্ষে ২০ রানের হার নিয়ে সাকিব বললেন, ‘টি-টুয়েন্টি যেহেতু মোমেন্টামের খেলা, তিনদিনে একটা প্রভাব পড়তেই পারে। সুতরাং আমরা আবার রি-গ্রুপ করে নতুন করে শুরুর চেষ্টা করবো। যেহেতু একটা ম্যাচের ব্যাপার, আমরা যদি ভালো ক্রিকেট খেলতে পারি তাহলে ভালো ফল সম্ভব।’

‘আমার মনে হয় উইকেট খুবই ভালো ছিল। দেখেন নিয়মিত উইকেট হারানোর পরও আমরা কত, ১৬-১৭ রানে হেরেছি (মূলত ২০ রানে)। আমরা যদি একটা বড় জুটি গড়তে পারতাম বা শুরুটা ভালো করতে পারতাম, যা আমরা পারিনি। পাওয়ার প্লে’র ৬ ওভারে আমরা ভালো ব্যাটিং করিনি। ওটা করতে পারলে ম্যাচটা আরও ভালো অবস্থায় যেতে পারত, শেষ দুই ওভারে আমাদের হাতে যদি উইকেট থাকত।’

ঢাকার দেয়া ১৮০ রানে লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে দেড়শ পেরিয়ে অলআউট হয় খুলনা। এই নিয়ে শেষ দুটি ম্যাচ হারল তারকাসমৃদ্ধ দলটি। যদিও তারা বঙ্গবন্ধু কাপে ৮ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফ নিশ্চিত করেছে আগেই।