চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দেউলিয়া হতে বসেছিলেন অমিতাভ, পেতেন পাওনাদারদের হুমকি

বলিউড তারকা অমিতাভ বচ্চনের ঝুলিতে থাকে একের পর এক ছবি। সবচেয়ে বেশি আয় করা তারকাদের একজন তিনি। বর্তমানে বিপুল পরিমাণ সম্পত্তির মালিক এই তারকাকেও প্রবল আর্থিক অনটনে পড়তে হয়েছিল একসময়। দেউলিয়া হয়ে যেতে বসেছিলেন তিনি।

১৯৯৯ সালে অমিতাভ বচ্চনের প্রতিষ্ঠান ‘এবিসিএল’ আর্থিক বিপর্যয়ে পড়ে যায়। ২০০০ সালে দেউলিয়া হয় তার সংস্থা। হাতে কাজ ছিল না, তাই করদাতা হিসাবেও বিপাকে পড়ে যান অমিতাভ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

৯০ কোটি রুপি ঋণে ডুবে গিয়েছিলেন এই তারকা। রাত দিন ব্যাঙ্ক থেকে আসতে থাকে একের পর এক ফোন। টাকা ফেরত চেয়ে পাওনাদাররা ফোনে হুমকি দিতেন। এরপর বাড়ির দরজায় এসে দাঁড়িয়ে থাকতেন তারা, অর্থের জন্য তাগাদা দিতেন।

বিজ্ঞাপন

২০১৩ সালে এক সাক্ষাৎকারে এই আর্থিক বিপর্যয়ের কথা জানিয়েছিলেন অমিতাভ। ‘মোহাব্বতে’ এবং ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’র সাফল্য ঘুরে দাঁড়াতে সাহায্য করেছে এই তারকাকে।

তবে ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’ ঘুরিয়ে দেয় অমিতাভ বচ্চনের জীবন। এরপর একের পর এক বিজ্ঞাপনে কাজ করতে থাকেন। বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠেন অমিতাভ।

এরপর থেকে শুরু হয় অমিতাভের জীবনে নতুন সফর। একের পর এক ছবি হিট হতে থাকে। সব ঋণ মিটিয়ে আয়ের ঝুলিও ভরতে থাকে। -হিন্দুস্তান টাইমস