চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দুই বছরেও ব্রিটেনের নাগরিকত্ব পাননি মেগান মার্কেল

দুই বছর আগে আবেদন করা সত্ত্বেও এখনো ব্রিটিশ নাগরিক হতে পারেননি প্রিন্স হ্যারির স্ত্রী, ডাচেস অব সাসেক্স মেগান মার্কেল।

তিনি ব্রিটিশ রাজপরিবারের একজন, ইতোমধ্যে তাদের বিয়ের দুই বছর পূর্ণ হতে চলেছে এবং একজন সন্তানও পৃথিবীতে আগমন করেছে।

বিজ্ঞাপন

ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইল বলছে, ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে ব্রিটেনের রাণীর নাতি প্রিন্স হ্যারির সাথে বাগদানের ঘোষণা দেওয়ার পরই মেগান মার্কেল ব্রিটেনে নাগরিকত্বের প্রক্রিয়া শুরু করেন। তবে কেনসিংটন প্যালেস সেসময় জানায়, মেগানকেও অন্যদের মতো করেই নাগরিক হতে হবে।

প্রিন্স হ্যারির যোগাযোগ সচিব জেসন নফ বলেছেন, অভিবাসন সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় সব ধরনের নীতিমালা মেনে চলবেন মেগান।

সেই নিয়ম মেনে চলার কারণে দেখা যাচ্ছে যে, রাজপরিবারের সদস্য হওয়া সত্ত্বেও তাকে এখনো নাগরিত্ব দেওয়া হয়নি।

এ বিষয়ে ডাচেসের এক বন্ধু  জানান, মেগান এখনও ব্রিটিশ নাগরিক নয়।

‘এটি একটু অদ্ভূত মনে হতে পারে। যদিও ১৮ মাস ধরে তিনি ব্রিটিশ রাণীর নাতির বিবাহিতা স্ত্রী’। তবে তিনি এটাও স্বীকার করেছেন যে, এটি একটি ধীর প্রক্রিয়া।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ব্রিটেনের নাগরিত্বের আবেদন করার জন্য অনেকগুলো উপায় রয়েছে। তবে সম্ভবত মেগান একজন ব্রিটিশ নাগরিকের স্ত্রী হিসেবে আবেদন করেছেন। কেউ যদি কোনো ব্রিটিশ নাগরিকের বাগদত্তা হিসেবে ব্রিটেনে আসেন, তাকে অবশ্যই ছয় মাসের মধ্যেই বিয়ে করতে হবে। হ্যারিকে বিয়ের মাধ্যমে ডাচেস এই শর্ত ২০১৮ সালের মে মাসেই পূরণ করেছেন।

অপর এক নিয়ম হলো, কোনো বিদেশি পারিবারিক ভিসায় একজন ব্রিটিশ নাগরিকের সঙ্গী হিসেবে আসেন, তবে তাদের সম্পর্ক প্রমাণ করার জন্য অনেক রকম সত্য প্রমাণপত্র/ তথ্য উপস্থাপন করতে হয়। এর মধ্যে ইমেইল এবং ফোনে কথোপকথন, বিভিন্ন স্থানে অবকাশযাপনের ছবি এবং বিমানের টিকেট অন্তর্ভুক্ত করতে হয়। এরপর তিন বছর ব্রিটেনে অবস্থান করার পর একজন স্ত্রী নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারেন। তখন নাগরিকত্ব অর্জনের জন্য ব্রিটেনে একটি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হয়। সম্ভাব্য নাগরিকদের ইংরেজি দক্ষতা, ওয়েলস বা স্কটিশ গ্যালিশ সম্পর্কে জ্ঞান এবং ভাল চরিত্রের অধিকারী হিসেবে প্রমাণ করতে হয়।

তবে আবেদনকারী ব্রিটেনের সরকার বা সরকারের ঘনিষ্ঠভাজন কেউ হলে ছাড় পেতে পারেন। যা মেগানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হতে পারে।

ব্রিটেনের নাগরিক হওয়ার জন্য খরচ করতে হয় ১,৩৩০ পাউন্ড।

ব্রিটিশ রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের নাতি প্রিন্স হ্যারি ও অভিনেত্রী মেগান মার্কেলের পরিচয় ২০১৬ সালে।  মেগানের আগে একবার বিয়ে হয়েছিল। তিনি প্রিন্সের চেয়ে বয়সে বড়।

গত বছরের নভেম্বরের শুরুতে তাদের মধ্যে বাগদান সম্পন্ন হয়। ২০১৮ সালের ১৯ মে প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কলের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়।

Bellow Post-Green View