চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দুই দশক পর গ্রুপপর্বেই বিদায়, ইউরোপায় অবনমন বার্সার

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বাঁচা-মরার ম্যাচে হেরেছে কাতালানরা

বায়ার্ন মিউনিখের মাঠে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপপর্ব থেকেই ছিটকে গেছে বার্সেলোনা। জাভি হার্নান্দেজের শিষ্যদের অবনমন হয়েছে ইউরোপা লিগে। এই গ্রুপ থেকে বায়ার্নের সঙ্গে বেনফিকা গেছে নকআউট পর্বে।

বুধবার রাতে অ্যালিয়াঞ্জ অ্যারেনায় ফিরতি লেগে বাভারিয়ানদের কাছে ৩-০ গোলে হেরেছে বার্সেলোনা। প্রথম দেখায় ন্যু ক্যাম্পে হেরেছিল একই ব্যবধানেই। তার আগের দেখায় ২০১৯-২০ আসরের কোয়ার্টারে বায়ার্নের কাছে ৮-২ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছিল।

দুই দশক পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপপর্ব থেকে বাদ পড়ল বার্সেলোনা। ২০০০-০১ মৌসুমে সবশেষ এমন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছিল কাতালানরা। যেজন্য ২০০৩-০৪ মৌসুমের পর ইউরোপের দ্বিতীয় বড় প্রতিযোগিতা ইউরোপা লিগে খেলতে হবে তাদের।

ম্যাচের ৩৪ মিনিটে রবার্ট লেভান্ডোভস্কির বাড়ানো বলে থমাস মুলারের হেডে দেয়াল হয়েছিলেন বার্সা গোলরক্ষক আন্দ্রে-টের স্টেগেন। ভিএআরে দেখা যায় বল গোললাইন পেরিয়ে গেছে। স্বাগতিকদের প্রথম গোল মিলে যায় তখনই।

বিজ্ঞাপন

বিরতির আগেই ব্যবধান দ্বিগুণ করে বায়ার্ন। ৪৩ মিনিটে কিংসলে কোম্যানের পাসে বল পেয়ে বক্সের বাইরে থেকে ডান পায়ের শটে টের স্টেগেনকে পরাস্ত করেন লেরয় সানে। ম্যাচে ফেরার আশা ফিকে হয়ে যায় বার্সেলোনার।

ম্যাচের ৬২ মিনিটে আলফানসো ডেভিসের থেকে বল আদায় করে প্রতিপক্ষ পাঁচ খেলোয়াড়কে কাটিয়ে বাঁ-পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন জামাল মুসিয়ালা। বার্সার কফিনে শেষ পেরেক ঠোকা হয়ে যায়।

এই জিয়ে লিভারপুল ও আয়াক্সের পর তৃতীয় দল হিসেবে চলতি আসরে গ্রুপপর্বের সব ম্যাচে জয়ের কীর্তি গড়ল বায়ার্ন। ১৮ পয়েন্ট নিয়ে ই-গ্রুপের শীর্ষে থেকে গেল নকআউটে।

একই গ্রুপে রাতের অন্য ম্যাচে ঘরের মাঠে ডায়নামো কিয়েভকে ২-০ গোলে হারিয়ে গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে শেষ ষোলোয় গেছে বেনফিকা। ৬ ম্যাচে ২ জয় ও ২ ড্রয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে নকআউটে তারা।

বিজ্ঞাপন