চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

একাধিক জাতীয় পরিচয়পত্র নেয়ায় সাবরিনার বিরুদ্ধে ইসির মামলা

জেকেজি হেলথ কেয়ারের জালিয়াতির মামলায় এখন কারাগারে আছেন জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের বরখাস্ত চিকিৎসক ডা. সাবরিনা শারমিন হুসাইন। এই অবস্থায় তার বিরুদ্ধে দুইবার ভোটার হয়ে একাধিক জাতীয় পরিচয়পত্র নেওয়ার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে নির্বাচন কমিশন।

গুলশান থানা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ মমিন মিয়া বাদী হয়ে রাজধানীর বাড্ডা থানায় সাবরিনার বিরুদ্ধে ২০১০ সালের জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন আইনের ১৪ ও ১৫ ধারায় মামলাটি দায়ের করেছেন।

বিজ্ঞাপন

বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. পারভেজ বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের গুলশান থানার নির্বাচন অফিসার মমিন মিয়া রোববার রাতে বাড্ডা থানায় এই মামলাটি দায়ের করেছেন।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মামলা প্রসঙ্গে মমিন মিয়া জানান, মিথ্যা তথ্য দিয়ে দ্বৈত ভোটার হয়ে এবং একাধিক জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে আইন অনুযায়ী অপরাধ করেছেন সাবরিনা শারমিন হুসাইন।

এজাহারে বলা হয়েছে, প্রথম ২০০৯ সালে মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে জাতীয় পরিচয় পত্র গ্রহণ করলেও তার তথ্য গোপন করে ২০১৬ সালে বাড্ডা এলাকা থেকে আবারও নির্বাচনে জাতীয় পরিচয় পত্র গ্রহণ করেন ডাঃ সাবরিনা।

১৪ ধারায় মিথ্যা তথ্য দেওয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ এক বছরের কারাদণ্ড এবং ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডের বিধান আছে। আর ১৫ ধারায় একাধিক জাতীয় পরিচয়পত্র নেওয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হলেও একই শাস্তি হতে পারে।