চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দিল্লির রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি কৃষকদের

জলকামান, টিয়ারগ্যাস আর পুলিশি বাধার মুখেও নিজেদের প্রতিবাদ চালিয়েই যাচ্ছে ভারতের কৃষকরা। সোমবার কৃষি আইন বাতিল চেয়ে দিল্লির ভেতরে ও বাইরে অবস্থান করা কৃষকরা হুমকি দিয়ে বলেছে, দাবি না মানলে দিল্লির পাঁচটি প্রবেশপথ-সোনিপত, রোহতাক, জয়পুর, ঘাজিয়াবাদ-হাপুর এবং মথুরা বন্ধ করে দেয়া হবে।

পার্শ্ববর্তী হারিয়ানার সীমান্ত বন্ধ থাকায় সোমবার সকালে দিল্লির পুলিশ সফরকারীদের বিকল্প পথ ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

কৃষকদের এমন হুমকির পরে শীর্ষ পর্যায়ে চলছে দফায় দফায় মিটিং। রোববার রাতেই ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং টোমার বিজেপি প্রধান জেপি নদ্দার সঙ্গে তার দিল্লির বাসভবনে মিটিং করেছেন বলে কিছু সূত্রে জানা গেছে।

দিল্লির ভেতরে ও বাইরে কৃষকরা বিক্ষোভ করছে, তারা কেন্দ্রের আলোচনা এবং তাদের বিক্ষোভ স্থান পরিবর্তনের প্রস্তাবও প্রত্যাখ্যান করেছে।

বিজ্ঞাপন

দুই ঘণ্টাব্যাপী চলে ওই মিটিং।  পরে সোমবার সকালে আবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কৃষিমন্ত্রী এই বিষয় নিয়ে আলোচনায় বসেন।

আন্দোলনে হরিয়ানা ও পাঞ্জাবর কৃষকদের সমর্থনে যুক্ত হয়েছে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, উত্তর প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, মহারাষ্ট্র ও অন্ধ্র প্রদেশের কৃষকরা।

নতুন আইনে ভারতে কৃষিপণ্য বিক্রয়, মূল্য নির্ধারণ ও গুদামজাত করণের নিয়মে পরিবর্তন আসবে। যে নিয়ম ভারতের কৃষকদের গত কয়েক দশক ধরে মুক্ত বাজার থেকে রক্ষা করেছে।

কৃষকরা চাইলে যে কারও কাছে তাদের পণ্য বিক্রি করতে পারবে। আগে যা কেবলমাত্র সরকার অনুমোদিত এজেন্টদের কাছেই বিক্রি করতে হতো।

নতুন আইনে কৃষকদের স্বার্থে আঘাত আসবে আশঙ্কা থেকেই বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছে কৃষকরা।