চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দিনাজপুরে শৈত্যপ্রবাহে শীতজনিত রোগ বাড়ছে

দিনাজপুরে রোববার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া শীতজনিত রোগে গত এক সপ্তাহে এখানে আক্রান্ত হয়েছে শিশু-বৃদ্ধসহ অনেকে।

অন্যদিকে তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে দেশের পুরো উত্তরাঞ্চলে।  প্রচণ্ড শীত আর শৈত্যপ্রবাহে নাকাল উত্তরাঞ্চলের জনজীবন।

বিজ্ঞাপন

এমন অবস্থায় হিমেল হাওয়া ও কনকনে শীতের তীব্রতায় খেটে খাওয়া মানুষ অসহায় অবস্থায় পড়েছে। তারা বের হতে পারছে না কাজে। শীতের তীব্রতায় বাড়ছে মানুষের রোগ-বালাই। কনকনে বাতাসে চরম বিপাকে পড়েছে শিশু এবং বৃদ্ধরা।

বিজ্ঞাপন

দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতাল দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল এবং অরবিন্দু শিশু হাসপাতালে শীতজনিত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে।

দিনাজপুরে খুব বেশি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছে না কেউ। গরম কাপড়ের অভাবে অসহায়-দরিদ্র ছিন্নমূল মানুষ খুব কষ্টে আছে।

ঘন কুয়াশার কারণে যানবাহনগুলো দিনের বেলায় রাস্তায় চলাচল করছে হেডলাইট জ্বালিয়ে। এতে সড়ক দুর্ঘটনা বেড়েছে। প্রতিনিয়ত ঘটছে হতাহতের ঘটনা।

দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেন জানান: এ পরিস্থিতি আরো ২/৩ দিন থাকবে।