চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দিতি নেই পাঁচ বছর

চলচ্চিত্রের একসময়কার জনপ্রিয় অভিনেত্রী পারভীন সুলতানা দিতি চলে যাওয়ার পাঁচ বছর পূর্ণ হলো শনিবার। ২০১৬ সালের ২০ মার্চ ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান এই তারকা।

মৃত্যুর পর দিতিকে তার বাবা মায়ের পাশে পারিবারিক গোরস্থান নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও দত্তরপাড়াতে দাফন করা হয়। মৃত্যুর সময় দিতি একপুত্র ও এক কন্যা রেখে গেছেন।

বিজ্ঞাপন

সদা হাস্যোজ্জ্বল এ নায়িকার অসময়ে চলে যাওয়াটা কেউই স্বাভাবিকভাবে মেনে নিতে পারেননি। আজও সেই অপূরণীয় ক্ষতি বয়ে বেড়াচ্ছে চলচ্চিত্রাঙ্গন। মৃত্যুর পঞ্চম বর্ষে তাই চলচ্চিত্রের তারকা অভিনেতা,নির্মাতারা এ দিনে দিতিকে স্মরণ করছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দিতির অভিনয় নিয়ে কথা বলছেন তার অসংখ্য ভক্ত অনুরাগীরা।

নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁয়ে ১৯৬৫ সালের ৩১শে মার্চ জন্ম নিয়েছিলেন দিতি। ১৯৮৪ সালে ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ কর্মসূচীর মাধ্যমে দেশীয় চলচ্চিত্রে তার ক্যারিয়ার শুরু হয়। দিতি অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র উদয়ন চৌধুরী পরিচালিত ‘ডাক দিয়ে যাই’। সেই ছবিটি মুক্তি পায় নি।

তার মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম ছবি আজমল হূদার ‘আমিই ওস্তাদ’। এরপর প্রায় দুই শতাধিক ছবিতে অভিনয় করেন দিতি। তার অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত দুটি ছবি হচ্ছে ‘রাজা বাবু’ এবং ‘সুইটহার্ট’।

সুভাষ দত্ত পরিচালিত ‘স্বামী স্ত্রী’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। ৩১ বছরের অভিনয় ক্যারিয়ারে দিতি চলচ্চিত্র ছাড়াও টিভি নাটক, টেলিছবি ও ধারাবাহিক নাটক, বিজ্ঞাপন এও কাজ করেছেন। তাকে দেখা গেছে রান্না বিষয়ক একটি অনুষ্ঠানের উপস্থাপনাতেও।