চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দাপুটে জয়ে শুরু টাইগারদের লঙ্কা সফর

মুশফিক-মিঠুনের হাফসেঞ্চুরিতে ৫ উইকেটে জয় টাইগারদের

দাপুটে জয় দিয়েই শ্রীলঙ্কা সফর শুরু হল বাংলাদেশের। সফরের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে বড় জয় পেয়েছে টাইগাররা। শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে তামিম ইকবালের দল।

জয়ের সঙ্গে বাংলাদেশের জন্য বাড়তি ভালো খবর, মূল লড়াইতে নামার আগে এই প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যাট হাতে রান পেয়েছেন দলের অধিকাংশ ব্যাটসম্যান। হাফসেঞ্চুরি পেয়েছেন মুশফিকুর রহিম ও মোহাম্মদ মিঠুন।

বিজ্ঞাপন

২৮৩ রানের টার্গেটে শুরুটা খুব বেশি ভালো হয়নি দুই ওপেনার তামিম ইকবাল এবং সৌম্য সরকারের। দুই ওপেনারই অনেকটা ধীরগতির সূচনা করেন। দলীয় ৪৫ রানে সৌম্য প্রথমে সাজঘরে ফিরেন। ২৪ বল থেকে তিনি করেন ১৩ রান। দলীয় ৫৮ রানে ৪৭ বল থেকে ৩৭ রান করা তামিমও ফিরে যান। শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ।

৫৮ রানে সৌম্য-তামিমকে হারিয়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। সেখান থেকে মিঠুনকে নিয়ে দলকে টেনে তোলেন মুশফিক। নেমেই লঙ্কান বোলারদের পাল্টা তোপ দাগাতে থাকেন মিস্টার ডিপেন্ডেবল। যোগ্য সমর্থন পান অপর ব্যাটসম্যানের কাছ থেকেও। তাতে চাপ কাটিয়ে ওঠে টাইগাররা।

বিজ্ঞাপন

এক পর্যায়ে মুশফিক-মিঠুনের জুটি জমাট বেঁধে যায়। তাতে ছোটে সফরকারীরা। এরমধ্যেই ফিফটি তুলে নেন মুশি। তবে এরপর আর স্থায়ী হতে পারেননি। ৪৬ বলে ৬ চার ও ১ ছক্কায় কাঁটায় কাঁটায় ৫০ রান করেন।

মুশফিক ফিরলেও সাবলীল ব্যাটিংয়ে দলের কাণ্ডারি হয়ে দাঁড়ান মিঠুন। তাকে ভালো সঙ্গ দেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। জুটিতে দুজনের মিলে তোলেন ৯৬ রান। এর মধ্যে একটু বেশি আগ্রাসী ছিলেন মিঠুন। রিয়াদ আউট হন ৩৭ রান করে।

দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেয়ার সঙ্গে নিজেও সেঞ্চুরি পথে এগোচ্ছিলেন মিঠুন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিন অঙ্ক ছুঁতে পারেননি তিনি। ১০০ বলে ১১টি চার ও এক ছক্কায় ৯১ রান করে আউট হয়ে যান মিঠুন।

মিঠুন আউট হলেও মোসাদ্দেক হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে বাকি কাজটুকু ভালোভাবেই শেষ করেন সাব্বির রহমান। ১১ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। ২৬ বলে পাঁচটি চারের সাহায্যে ৩১ রানে অপরাজিত থাকেন সাব্বির। ১০ বল থেকে তিন চারে ১৫ রানে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক।

এর আগে প্রথম ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ২৮২ রান করে শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ। শানাকা সর্বোচ্চ ৮৬ ও শেহান জয়াসুরিয়া ৫৬ রান করেন। দুটি করে উইকেট নেন রুবেল হোসেন ও সৌম্য সরকার।

Bellow Post-Green View