চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দশ লাখের বেশী ভিউ, সাথে প্রশংসার ফুলঝুরি

ঈদ আয়োজনে চ্যানেল আইয়ের পর্দায় ওয়ার্ল্ড টিভি প্রিমিয়ার হয়েছে শাহরিয়ার নাজিম জয় পরিচালিত বহুল প্রতীক্ষিত ছবি ‘প্রিয় কমলা’র। এরপরই সিনেমাটি দেয়া হয় চ্যানেল আইয়ের ইউটিউবে। আর সেখানে প্রায় দশ দিনে সিনেমাটি দেখা হয়েছে ১০ লাখের বেশী বার!

অপু বিশ্বাস ও বাপ্পী চৌধুরী অভিনীত ‘প্রিয় কমলা’ চ্যানেল আইয়ের নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে দেয়ার পর থেকেই অসংখ্য দর্শক ছবিটি নিয়ে নিজেদের মতামত জানাচ্ছেন। প্রায় সব দর্শকই ছবিটির প্রশংসা করছেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

আর অনেকেই অপু বিশ্বাস ও বাপ্পীকে অন্যরকমভাবে উপস্থাপনের জন্য এই ছবির নির্মাতা শাহরিয়ার নাজিম জয়কে ধন্যবাদ জানাচ্ছেন। শিল্পী নামে একজন লিখেছেন, ‘অপুর কাম ব্যাকটা সত্যি সুন্দর ছিল।’

অন্য আরেক দর্শক ছবিটি দেখে মন্তব্য করেছেন, ‘মুভি দেখে খুব ভাল লাগলো। সাথে জানতে পারলাম আমাদের শরীয়তপুরে একজন মুক্তিযুযোদ্ধার কথা, যিনি এখনো বেঁচে আছেন।’

আঁখি নামে আরেকজন দর্শক বলেন, ‘অনেক বছর পর একটা বাংলা মুভি দেখলাম। সত্যিই অসাধারণ। চোখের পানি ধরে রাখতে পারলাম না। অপু আর বাপ্পী এ ছবির জন্য অনেক ধন্যবাদ। ছবির পরিচালকসহ সবাইকে ধন্যবাদ। আমরা এরকম ছবি আরও দেখতে চাই। আরেকবার যুদ্ধ হওয়া দরকার, জয় বাংলা।’

বিজ্ঞাপন

সাদিয়া ইসলাম নামের একজন লিখেছেন, ‘সত্যিই অসাধারণ মুভি ছিলো। বর্তমান প্রজন্ম মুভিটা দেখে মুক্তিযুদ্ধের সময়কার চিত্র, মানুষের কষ্ট, যন্ত্রণা অনেকটাই উপলব্ধি করতে পারবে। সত্যিই চোখে জল চলে আসছে।’

বর্ষা আহমেদ নামের একজন লিখেছেন, ‘অনেকদিন পর অপু বিশ্বাসের মুভি দেখলাম। অপু বিশ্বাস নায়িকা থেকে অভিনেত্রী হয়ে উঠছে, ভালো লাগলো। অসাধারণ অভিনয়।’

গেল ডিসেম্বরে শুরু হয়েছিল ‘প্রিয় কমলা’র শুটিং। রীতিমতো দিন রাত এক করে তিন সপ্তাহে শুটিং শেষ করা হয় সিনেমাটির। অপু-বাপ্পী ছাড়াও সোহেল খান, মালা খন্দকার, সেহাঙ্গল বিল্পব, শিশুশিল্পী আযান সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন।

‘প্রিয় কমলা’ ছবিতে অপু বিশ্বাস একজন বীরাঙ্গনা’র চরিত্রে অভিনয় করেন। এ ধরনের চরিত্র নিয়ে এবারই প্রথম দর্শকদের সামনে এলেন ঢালিউডের জনপ্রিয় এই নায়িকা। ‘প্রিয় কমলা’য় একটি গান রবীন্দ্রসংগীত এবং অন্যটির কথা লিখেছেন ফরিদুর রেজা সাগর।

পরিচালক জয় বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছরে দেশ আসলে কী অর্জন করলো এবং কী অর্জন করলো না এটাও তুলে ধরেছি সিনেমায়। এ গল্পটিতে স্বচ্ছভাবে পর্দায় তুলে ধরার চেষ্টা করেছি।